মলদ্বারে লুকিয়ে 74 লক্ষের সোনা পাচারের চেষ্টা! সীমান্তে আটক পাচারকারী

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 28, 2024, 8:02 PM IST

কন্ডোমে ভরে মলদ্বারে লুকনো 74 লক্ষ টাকার সোনা

Smuggler Detained: পাচারের জন্য কন্ডোমে ভরে মলদ্বারে লুকিয়ে ওপার থেকে এপারে আসছিল এক পাচারকারী ৷ 1 কেজি 7 গ্রাম ওজনের 10টি সোনার বিস্কুট সে ওইভাবে লুকিয়ে রেখেছিল ৷ তবে এত আঁটঘাট বেঁধেও শেষরক্ষা হল না ৷ বিএসএফ জওয়ানদের তৎপরতায় ওই পাচারকারীকে আটক করেছে দক্ষিণবঙ্গ সীমান্তের 102 ব্যাটেলিয়নের জওয়ানরা ৷

কলকাতা, 28 জানুয়ারি: ফের সোনা চোরাচালানের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করল দক্ষিণবঙ্গ সীমান্তের 102 ব্যাটেলিয়নের সতর্ক বিএসএফ জওয়ানরা। বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচারের সময় এক কেজি 7 গ্রাম ওজনের 10টি সোনার বিস্কুট-সহ একজন চোরাকারবারীকে আটক করেছে বিএসএফ। বাজেয়াপ্ত করা সোনার বিস্কুটের আনুমানিক মূল্য 74 লক্ষ 17 হাজার 713 টাকা 25 পয়সা। ধৃত পাচারকারীর নাম অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তিনি উত্তর 24 পরগনার গোবর্ধার বাসিন্দা। আটক চোরাকারবারীকে ও বাজেয়াপ্ত সোনার বিস্কুট তেঁতুলিয়া কাস্টমস অফিসে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উত্তর 24 পরগনার স্বরূপনগর থানার গোবর্ধার সতর্ক বিএসএফ জওয়ানরা সন্দেহভাজন ব্যক্তির দ্বারা সোনা চোরাচালানের সম্পর্কে গোপন তথ্য পেয়েছিল। 27 জানুয়ারি রাতে একজন গ্রামবাসীর মেটাল ডিটেক্টরের রুটিন তল্লাশির সময় সতর্ক বিএসএফ জওয়ানরা তার শরীরের নীচের অংশে কিছু ধাতব পদার্থের উপস্থিতি লক্ষ্য করে। জওয়ানরা ওই ব্যক্তিকে সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের হেফাজতে নেয়। অবৈধ জিনিসপত্র-সহ আত্মসমর্পণ করতে বলে। এরপর অভিযুক্ত শরীরে লুকনো 3টি কন্ডোম বের করে। অভিযুক্তের মলদ্বারে সেগুলি লুকানো ছিল।

জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, এই বিপুল সোনার চালানটি বাংলাদেশের সাতক্ষীরার বৈকারি গ্রামের রজব আলি নামে এক বাংলাদেশি নাগরিকের কাছ থেকে গ্রহণ করে। পরে গোবর্ধার বাজারে ভারতীয় চোরাকারবারীর অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছে চালানটি পৌঁছে দিতে যাচ্ছিল। সীমান্তের তারকাটা বিহীন এলাকার বাসিন্দা হওয়ায় তার বাংলাদেশে যাতায়াত ছিল। সেই সুযোগেই এই পাচারের চেষ্টা। এর আগেও 2013 সালে শুল্ক দফতর তাকে 3টি সোনার বিস্কুট-সহ গ্রেফতার করেছিল।

জওয়ানদের এই কৃতিত্বে দক্ষিণবঙ্গ সীমান্তের জনসংযোগ আধিকারিক শ্রী একে আর্য্য (ডিআইজি) আনন্দ প্রকাশ করেন। তিনি আরও বলেন, "কুখ্যাত চোরাকারবারীরা দরিদ্র ও নিরীহ মানুষকে সামান্য অর্থের প্রলোভন দিয়ে ফাঁদে ফেলে। কুখ্যাত পাচারকারী চক্র সরাসরি চোরাচালানের মতো অপরাধে জড়িত নয়, তাই তারা দরিদ্র মানুষকে টার্গেট করে। তিনি সীমান্তে বসবাসকারী লোকদের কাছে আবেদন করেছেন যে তারা যদি সোনা চোরাচালান সংক্রান্ত কোনও তথ্য পান তবে তারা বিএসএফ-এর সীমা সাথী হেল্পলাইন নম্বর 14419 -এ এই তথ্য দিতে পারেন। এছাড়া দক্ষিণবঙ্গ সীমান্ত আরও একটি নম্বর 9903472227 জারি করেছে। সঠিক তথ্য প্রদানকারী ব্যক্তিকে একটি উপযুক্ত পুরস্কারের পরিমাণ দেওয়া হবে এবং তাঁর পরিচয় গোপন রাখা হবে।

আরও পড়ুন:

  1. ইছামতীর তীরে 3 কোটির সোনার ইট ও বিস্কুট পাচারের চেষ্টা রুখে দিল বিএসএফ
  2. ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফের অভিযান, 56 গরু-সহ গ্রেফতার পাচারকারীরা
  3. মানবিক বিএসএফ ! বাবাকে শেষ বিদায় জানাতে বাংলাদেশ থেকে আনা হল মেয়েকে
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.