চোপড়া হয়ে রায়গঞ্জ, মুখ্যমন্ত্রীর উত্তর দিনাজপুর সফরে হঠাৎ বদল

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 30, 2024, 7:11 AM IST

ETV Bharat

Mamata Banerjee: আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে আসছেন ৷ তবে তাঁর যাত্রাপথে কিছু পরিবর্তন হয়েছে ৷ মঙ্গলবার তিনি চোপড়ায় অস্থায়ী হেলিপ্যাডে নামবেন ৷ সেখান থেকে ইসলামপুর হয়ে রায়গঞ্জে পৌঁছবেন ৷

উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায় হেলিপ্যাডে নামবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রায়গঞ্জ, 30 জানুয়ারি: শেষ মুহূর্তে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উত্তর দিনাজপুর জেলা সফরে কিছুটা রদবদল হল ৷ আগের সফরসূচি অনুযায়ী মঙ্গলবার শিলিগুড়ি থেকে হেলিকপ্টারে করে রায়গঞ্জ পলিটেকনিক কলেজের অস্থায়ী হেলিপ্যাডে নামার কথা ছিল তাঁর ৷ সেখান থেকে স্টেডিয়ামে সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দিতেন তিনি ৷ কিন্তু হঠাৎ সোমবার দুপুরে তা বদল হয় ৷ জেলা তৃণমূল সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, "মঙ্গলবার শিলিগুড়ি থেকে হেলিকপ্টারে করে চোপড়া নামবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ সেখান থেকে সড়ক পথে ইসলামপুরে আসবেন ৷ ইসলামপুরে পৌঁছে প্রায় 1 কিমি পথ পদযাত্রা করবেন তিনি ৷ সেখান থেকে হেলিকপ্টার করে রায়গঞ্জে আসবেন ৷"

এজন্য সোমবার ইসলাম পৌর হাইস্কুল মাঠে অস্থায়ী ভিত্তিতে হেলিপ্যাড তৈরির কাজ শুরু করে প্রশাসন ৷ প্রস্তুতি পর্ব খতিয়ে দেখেন মন্ত্রী গোলাম রব্বানি ৷ অন্যদিকে রায়গঞ্জেও মুখ্যমন্ত্রীর সফরসূচিতে সামান্য রদবদল ঘটানো হতে পারে বলে সূত্রের খবর ৷ জানা গিয়েছে পলিটেকনিক কলেজ মাঠের পরিবর্তে মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টার নামতে পারে রায়গঞ্জ টাউন ক্লাব মাঠে ৷

সেখান থেকে হেঁটে রায়গঞ্জ স্টেডিয়ামে সভাস্থলে পৌঁছাবেন তিনি ৷ পথে বিদ্রোহী মোড়ে অবস্থিত গান্ধীমূর্তিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারেন তিনি ৷ এই কারণে সোমবার দুপুরে টাউনক্লাব মাঠে অস্থায়ী হেলিপ্যাড তৈরির কাজ শুরু হয় ৷

কেন মুখ্যমন্ত্রীর এই সফরসূচি পরিবর্তন ? রাজনৈতিক মহলের একাংশের অনুমান রবিবার কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি চোপড়া থেকে পাঞ্জীপাড়া পর্যন্ত জনসংযোগ যাত্রা করেন ৷ রাহুলের সেই কর্মসূচিতে ভিড় হয় চোখে পড়ার মতন ৷ এই কর্মসূচির পালটা হিসাবেই মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মত দূরদর্শী রাজনীতিবিদ নিজের জনসংযোগের ক্যারিশমা তুলে ধরতে আগ্রহী ৷

সেই কারণেই সফরসূচিতে এই পরিবর্তন ৷ প্রদেশ কংগ্রেস নেতা নেপাল মাহাতো বলেন, "রাহুল গান্ধির এই কর্মসূচি রাজনৈতিক নয় ৷ দেশজুড়ে ঘৃণা-বিদ্বেষের পরিবর্তে ভালোবাসার বার্তা পৌঁছে দিতেই রাহুল পথে নেমেছেন ৷ এনিয়ে পারস্পরিক প্রতিযোগিতা না হলেই ভালো ৷ যদিও জেলা তৃণমূলের সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, "প্রতিযোগিতার কোনও ব্যাপার নেই ৷ রাহুল গান্ধির কর্মসূচিতে লোক হয়নি ৷ মুখ্যমন্ত্রীর কর্মসূচির সঙ্গে ড্যামেজ কন্ট্রোলের কোনও সম্পর্ক নেই ৷ অন্যদিকে জেলাশাসক সুরেন্দ্র কুমার মীনা বলেন, "মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি কর্মসূচী রয়েছে ৷ এখানে সরকারি প্রকল্প ঘোষণা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ পাশাপাশি কয়েকটি শিলান্যাসও করার কথা রয়েছে ৷"

আরও পড়ুন:

  1. সীমান্তে উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি করতেই বিএসএফকে আক্রমণ মমতার, দাবি নিশীথের
  2. ফের কেন্দ্রীয় বঞ্চনা নিয়ে তোপ, বকেয়া টাকা না পেলে 2 ফেব্রুয়ারি থেকে ধরনায় মমতা
  3. বিজেপির মুখে সিএএ-র কথা আসলে ভোটের রাজনীতি, দাবি মমতার
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.