অল্প ব্যবধানে হারা আরামবাগে জিততে বিজেপির বাজি মোদি, কাজ হবে না; দাবি অপরূপার

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Feb 24, 2024, 6:40 PM IST

Updated : Feb 25, 2024, 9:47 AM IST

Aparupa Poddar

Aparupa Poddar: বিধানসভার পর লোকসভা নির্বাচনকে টার্গেট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রচার শুরু আরামবাগ থেকে । আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রে পদ্ম ফোটাতে মরিয়া বিজেপি । পালটা বিজেপিকে মিথ্যাবাদী ও ধান্দাবাজ দলের আখ্যা দিয়ে কটাক্ষ তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের । শুরু রাজনৈতিক তরজা ।

আরামবাগে মোদির সভা নিয়ে রাজনৈতিক তরজা

আরামবাগ, 24 ফ্রেব্রুরারি: লোকসভা নির্বাচনের আগে মার্চের শুরুতেই বাংলায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । আর তাঁর রাজ্যে আসা মানে ভোটের ঢাকে কাঠি পড়ে যাওয়া ৷ রাজ্যে এসে আরামবাগ থেকে ভোটের প্রচার শুরু করতে চলছেন প্রধানমন্ত্রী । গতবার এই আরামবাগে মাত্র হাজার খানেক ভোটে বিজেপিকে হারিয়ে জিতেছে তৃণমূল । আর তাই এখানে মোদিকে দিয়ে প্রচার শুরু করিয়ে সংগঠনকে আরও চাঙ্গা করতে চাইছে বিজেপি । সেই মতো বিজেপির তরফে তোড়জোড় শুরু হয়েছে । রাজ্য সফরে শুধুমাত্র আরামবাগই নয়, আরও দুই জায়গায় যাবেন তিনি । ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রীর এই সফরকে কাজে লাগিয়ে বিজেপি ভোট প্রচারে ঝড় তুলতে চাইছে । মোদিকে দিয়ে সভা করিয়ে বিজেপির বিশেষ সুবিধে হবে না বলে মনে করেন আরামবাগের তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দার ৷ তাঁর আশা, এবারও তৃণমূলের হাতেই থাকবে আরামবাগ ।

গত লোকসভা নির্বাচনে মাত্র 1142 ভোটের ব্যবধানে আরামবাগের বিজেপির প্রার্থী তপন রায় পরাজিত করে জয়ী হন অপরূপা । 2019 সালে নিজেদের ভোটের অনেকটাই হারিয়েছিল তৃণমূল । এই সামান্য ব্যবধানকে পূরণ করলেই আরামবাগের লোকসভা চলে যাবে বিজেপির দখলে । তবে তৃণমূলও আঁটঘাঁট বেঁধে নামছে ৷ এবারের লোকসভায় শাসকদল যে একটুও জায়গা বিজেপিকে ছাড়বে না তা উঠে এসেছে সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের কথা থেকেই । নির্বাচনের দিন ঘোষণা হতেই তাঁরা ভোটের ময়দানে নেমে পড়বেন বলে জানিয়েছেন সাংসদ ।

2024 সালের লোকসভা নির্বাচনে আরামবাগ যে পাখির চোখ বিজেপির, তা বলাই বাহুল্য । প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন সফরও সেই দিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে ৷ আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রকে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়ার নেপথ্যে বেশ কিছু কারণও আছে । গতবার কম ব্যবধানে হারার পাশাপাশি তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকেও কাজে লাগাতে চায় তৃণমূল । এর পাশাপাশি এই এলাকায় বিধানসভা নির্বাচনের ফল বিজেপির মুখে হাসি ফুটিয়েছে । আরামবাগ, পুরশুড়া, খানাকুল ও গোঘাট নিজেদের দখলে রেখেছে বিজেপি । সেদিক থেকে আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রে পদ্ম ফোটানোর ব্যাপারে আশাবাদী গেরুয়া শিবির ।

তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দার বলেন, "প্রধানমন্ত্রী মোদি এসেও কোনও লাভ হবে না বিজেপির । মানুষের মুখের ভাত কেড়ে নিয়েছে বিজেপি। কেন্দ্রের নানা প্রকল্প ও উন্নয়ন স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে আরামবাগে । এখানকার মানুষ বুঝেছেন বিধানসভায় বিজেপিকে জিতিয়ে কোনও কাজ হয়নি । তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই তাঁদের একমাত্র ভরসা ।"

অন্যদিকে, বিজেপির আরামবাগ সাংগঠনিক জেলা সভাপতি ও পুরশুড়ার বিধায়ক বিমান ঘোষের পালটা দাবি, "গতবার প্রশাসনের একাংশকে ব্যবহার করে বিজেপিকে হারানো হয়েছে । আমাদের সৌভাগ্য প্রধানমন্ত্রী আরামবাগ থেকে লোকসভার প্রচার শুরু করছেন । আরামবাগে সাংসদ অপরূপা পোদ্দার আসলে কম্পার্টমেন্টাল সাংসদ । ওঁর কোনও যোগ্যতা নেই মোদিজিকে নিয়ে কথা বলার ।" সমাজকর্মী ও শিক্ষক আবু হোসেনের কথায়, রাজ্য ও কেন্দ্রে শুধু রাজনীতি করছে । আর সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠছে । রাজ্যে দুর্নীতিতে ভোরে গিয়েছে । কোনও নিয়োগ নেই । শিল্প নেই । মানুষ ভোট দেয় উন্নয়নের জন্য । আগে সেটাই চাই । কে প্রচারে এলো আর কে কোথায় গেল তাতে কোনও কিছুই এসে যায় না ।

ইটিভি ভারতের মুখোমুখি হয়ে আরামবাগে প্রধানমন্ত্রীর আসা নিয়ে অপরূপা পোদ্দার আরও বলেন, "উনি আরামবাগে প্রথম আসছেন । আর আরামবাগ থেকেই বিজেপির হার শুরু হবে । আরামবাগের মানুষ চারটি বিধানসভায় বিজেপিকে নির্বাচিত করে কোনও ফল পাননি । ভারতীয় জনতা পার্টি আরামবাগে কিছুই করেনি । আরামবাগে চারটি বিধানসভায় বিজেপি জেতার পর থেকেই আবাস যোজনার ও 100 দিনের টাকা বন্ধ করে দিল কেন্দ্র । নানাভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টার্গেট করা হচ্ছে ।"

বিজেপির অভিযোগ, 2019 সালের লোকসভায় অন্ধকার করে, দেরি করিয়ে মাত্র 1142 ভোটে জিতেছিলেন আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দার । এই বিষয়ে সাংসদ বলেন, "এই প্রশ্নের উত্তর শুভেন্দু অধিকারী দেওয়া উচিত । কারণ উনি লোডশেডিং বিরোধী দলনেতা । এছাড়াও বিজেপির সাংসদ আলুওয়ালিয়াজি উনি কত ভোটে জিতেছিলেন ? সেটাও মনে রাখতে হবে। রাজনীতিতে প্রবাদ আছে 'জো জিতা ওহি সিকান্দার'। ভারতীয় জনতা পার্টির এমন অনেক নেতা আছেন যাঁরা 500-200 ভোটে হেরেছেন । 2019 সালের ভোটে মেরুকরণ করা হয়েছিল। আচ্ছে দিনের আশ্বাস দিয়েও পূরণ করা হয়নি । ভারতীয় জনতা পার্টি কোনও ফ্যাক্টর হবে না । ওরা ধাপ্পাবাজদের দল ।"

আরও পড়ুন:

  1. মার্চের শুরুতে সাতদিনে বাংলায় মোদির তিনটি সভা, আরামবাগ-কৃষ্ণনগর-বারাসতে কর্মসূচি প্রধানমন্ত্রীর
  2. সন্দেশখালির নির্যাতিতারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চাইলে সব ব্যবস্থা করবে বিজেপি, জানালেন সুকান্ত
  3. 'বাংলায় এনআরসি হতে দেব না', লোকসভার আগে ফের সোচ্চার মমতা
Last Updated :Feb 25, 2024, 9:47 AM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.