বেআইনি মাদ্রাসা ভেঙে দেওয়ায় রণক্ষেত্র হলদওয়ানি, থানায় আগুন; পুলিশের গুলিতে মৃত 1

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 8, 2024, 10:10 PM IST

Updated : Feb 8, 2024, 10:32 PM IST

মাদ্রাসা ভেঙে দেওয়ার পর শহরে রণক্ষেত্র

Curfew Imposed Haldwani: রণক্ষেত্রের আকার নিয়েছে উত্তরাখণ্ডের হলদওয়ানি এলাকা ৷ ওই এলাকার এক বেআইনি মাদ্রাসা ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হয় ৷ তারপরই দুষ্কৃতীরা স্থানীয় থানা থেকে এলাকার একাধিক জায়গায় আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ ৷

হলদওয়ানি (উত্তরাখণ্ড), 8 ফেব্রুয়ারি: বেআইনিভাবে নির্মিত হয়েছে মাদ্রাসা ৷ এমনই দাবি করে বৃহস্পতিবার উত্তরাখণ্ডের নৈনিতাল হলদওয়ানির কাছে নির্মিত ওই মাদ্রাসাটি ভেঙে দেওয়া হয় ৷ তারপরই শহরের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হল ৷ দুষ্কৃতীরা স্থানীয় থানা থেকে এলাকার একাধিক জায়গায় আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ ৷ পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথরও ছোড়া হয় ৷ জেলা প্রশাসন ইতিমধ্যেই শহরে কারফিউ জারি করেছে। পাশাপাশি, হামলাকারীদের দেখলেই গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশকে ৷ শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী পুলিশের গুলিতে তিন জন আহত হয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে 1 জনের প্রাণ যায়।

জানা গিয়েছে, মাদ্রাসাটি অবৈধভাবে নির্মিত বলে দাবি করেছে প্রশাসন। ওই ভবনটি ভেঙে দেওয়ার সময় কয়েকজন পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতেও জড়িয়ে পড়েন এলাকাবাসী ৷ পুলিশকে লক্ষ্য করে ঢিল ছোড়ায় বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন। আরও জানা গিয়েছে, বেশ কয়েকদিন ধরে হলদওয়ানি মিউনিসিপ্যাল ​​কর্পোরেশনের সঙ্গে জেলা প্রশাসন যৌথভাবে সরকারি জমিতে বেআইনি নির্মাণ ধ্বংস করছে। ওই দলটি বুলডোজার নিয়ে এদিন বনভুলপুরা থানার অন্তর্গত ওই মাদ্রাসাটিও ভেঙে দেয় ৷

আর তারপরই স্থানীয় বাসিন্দারা এই নির্মাণকে ভেঙে ফেলার পর সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করে। বাড়ির ছাদ থেকে জেসিবি মেশিন ও পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে পাথর ছুড়তে থাকে ৷ এতে বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী আহতও হন। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বাধা দিতে গেলে সংঘর্ষ বেধে যায়। এছাড়াও পুলিশের কয়েকটি গাড়িতে আগুনও ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে পুলিশ জনতাকে থামাতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। পরে উত্তেজিত জনতা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ শুরু করে।

এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং পুলিশ ও প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছন। বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে উত্তরাখণ্ড মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি তাঁর সমস্ত কর্মসূচি বাতিল করে দেরাদুনের বাসভবনে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন। ডিজিপি অভিনব কুমার-সহ সরকার ও পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা বৈঠকে যোগ দিতে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ইতিমধ্যেই পৌঁছেছেন।

সূত্রের খবর, ডিএম নৈনিতাল বনভুলপুরা এলাকায় কারফিউ জারি করেছে ৷ দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে দেখা মাত্র গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রশাসনের কর্তারা বলেছেন, ওই মাদ্রাসায় আগেই নোটিশ পাঠানো হয়েছিল যে এটি 'অবৈধভাবে' নির্মিত। তবে, কর্তৃপক্ষ কোনও আইনি তথ্য প্রশাসনকে দিতে পারেনি ৷ এরপরই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন:

  1. হাত-পা বাঁধা অবস্থায় নিখোঁজ নাবালকের দেহ উদ্ধার, রণক্ষেত্র কামারহাটি
  2. মন্দির ভেঙে অন্যায় করেন ঔরঙ্গজেব, মসজিদ অন্যত্র তৈরি হতে পারত, মত ইতিহাসবিদ ইরফান হাবিবের
  3. আদালতের নির্দেশের পরই বৃহস্পতির ভোর থেকে জ্ঞানবাপী মসজিদের ভিতরে শুরু পুজো-পাঠ
Last Updated :Feb 8, 2024, 10:32 PM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.