শুধু এখন নয়, আগেও মমতা-বিরোধিতায় সরব হয়েছিলেন ইসলামপুরের বিধায়ক

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Nov 25, 2023, 12:26 PM IST

ETV BHARAT

Anti-Mamata Stand by MLA Abdul Karim Chowdhury: তৃণমূলের বর্তমান নেতৃত্বের থেকে যে তিনি বহুদূরে, তা আরও একবার প্রমাণিত ৷ গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন ইসলামপুরের বিধায়ক আব্দুল করিম চৌধুরী ৷ তবে, এটাই প্রথম নয় ৷ উত্তর দিনাজপুরের রাজনীতিতে কানাইয়ালাল বিরোধী এই নেতা গত পঞ্চায়েত নির্বাচনেও তৃণমূলের বিরুদ্ধে গিয়েছিলেন ৷

কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে উত্তর দিনাজপুরের সভাপতি করায় ক্ষুব্ধ আবদুল করিম চৌধুরী

ইসলামপুর, 25 নভেম্বর: ইসলামপুরের রাজনীতিতে আবদুল করিম চৌধুরী নামের গুরুত্ব কতটা, তার প্রমাণ বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচন ৷ যেখানে তৃণমূল নির্ধারিত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে নির্দলদের দাঁড় করিয়েছিলেন তিনি ৷ শুধু নির্দল প্রার্থীদের দাঁড় করানো নয়, সেখানে অধিকাংশ আসনে জয়লাভ করেছে নির্দলরা ৷ কিন্তু, সম্প্রতি তৃণমূল তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে তাঁর প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়ে গিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামপুরের বিধায়ক ৷ তবে, এই তৃণমূল বা মমতা বিরোধী মন্তব্য এই প্রথম নয় ৷ বরিষ্ঠ এই রাজনীতিক আগেও বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর নাম করেই সরাসরি হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন ৷

ঘটনাক্রমে বলা যায়, গত জুলাই মাসে হওয়া পঞ্চায়েত নির্বাচন ৷ যে নির্বাচনে ইসলামপুর মহকুমা তথা বিধানসভা এলাকায় তৃণমূল নির্ধারিত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে যান তিনি ৷ নির্দলপ্রার্থী দাঁড় করিয়েছিলেন আবদুল করিম ৷ জেলার রাজনৈতিকমহলের মতে, দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যাওয়ার অন্যতম কারণ উত্তর দিনাজপুরের তৃণমূল সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল ৷ অতীতে একাধিকবার কানাইয়ালালের সঙ্গে তাঁর মতোবিরোধ শিরোনামে উঠে এসেছিল ৷

তা সে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংগঠনিক বৈঠকে আবদুল করিমে ব্রাত্য রাখা হোক, বা রায়গঞ্জে নির্বাচনী প্রচারের সভায় ইসলামপুরের বিধায়ককে আমন্ত্রণ না জানানো ৷ যা নিয়ে সরাসরি জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন ইসলামপুরের বিধায়ক ৷ এমনকি নিজেকে বিদ্রোহী প্রমাণ করতে পরবর্তী সময়ে একাধিক দলীয় বৈঠকে বয়কট করেছিলেন ৷ পরবর্তী সময়ে সংবাদমাধ্যমে সেকথা জানিয়েও ছিলেন তিনি ৷

আর এর প্রভাব এতদূর ছড়িয়েছে যে, পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন আবদুল করিম চৌধুরী ৷ পঞ্চায়েতে প্রার্থী দেওয়া নিয়ে সরাসরি বলেছিলেন, ‘‘এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ করতে পারবেন এবং যাঁদের ভাবমূর্তি স্বচ্ছ, তাঁদেরই প্রার্থী করতে হবে ৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি আমার তৈরি করা প্রার্থী তালিকায় অনুমোদন না দেন, তাহলে সবাইকে নির্দল হিসেবে ভোটে দাঁড় করাব ৷’’ সেই হুমকিকে পরবর্তী সময়ে সত্যি করেছিলেন আবদুল করিম ৷

আর এবার উত্তর দিনাজপুরে তৃণমূলের সভাপতি পদে ফের কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে বসানোয় বেজায় ক্ষুব্ধ আবদুল করিম চৌধুরী ৷ যেখানে তিনি অভিযোগ তুলেছেন, কানাইয়ালাল এবং তার অনুগামীরা ইসলামপুরে সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে ৷ একটি রাজবংশী পরিবারকে বাড়িছাড়া করে রেখেছেন বলেও অভিযোগ তুলেছেন তিনি ৷ এ নিয়ে পুলিশ প্রশাসনের কাছে সাহায্য চেয়েও পাননি ৷ তাঁর দাবি, ‘‘পুলিশের তরফে তাঁকে বলা হয়েছে, কানাইয়ালাল না বললে কিছুই করা যাবে না ৷’’

তাই এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে তাঁর সরাসরি বার্তা, আবদুল করিম চৌধুরী এগারোবারের বিধায়ক ৷ তৃণমূলের লোকজন বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য তিনি এতবার বিধায়ক হননি ৷ তার প্রমাণ দু’বার নির্দল হিসেবে বিধায়ক নির্বাচিত হওয়া ৷ তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যেমন তাঁকে দরকার পরে না, তেমনি তিনি কারও পরোয়া করেন না ৷

আরও পড়ুন:

  1. ইসলামপুর ছেড়ে গেলে ফের অনুগামীদের উপর হামলার শংকা, একুশের মঞ্চে থাকছেন না করিম চৌধুরি
  2. পঞ্চায়েতে নির্দল প্রার্থী দেওয়ার হুমকি তৃণমূল বিধায়ক করিম চৌধুরীর
  3. কালীঘাটে মমতার বৈঠক এড়ালেন বিদ্রোহী আবদুল !
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.