রক ক্লাইম্বিং, রাতে ক্যাম্প ফায়ার; ভ্রমণের নয়া ডেস্টিনেশন পাশাবং

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 25, 2024, 5:16 PM IST

Updated : Jan 25, 2024, 5:31 PM IST

Pashabong village News

Pashabong Village: পর্যটনের নতুন ঠিকানা কালিম্পং জেলার পাশাবং গ্রাম । পাখি নিয়ে যারা কাজ করেন বা পাখির ছবি তুলতে ভালোবাসেন তাদের জন্য আদর্শ গ্রাম এই পাশাবং ।

জলপাইগুড়ি, 25 জানুয়ারি: পর্যটনের নতুন ঠিকানা কালিম্পং জেলার পাশাবং গ্রাম । পাখি নিয়ে যারা কাজ করেন বা পাখির ছবি তুলতে ভালোবাসেন তাদের জন্য আদর্শ গ্রাম এই পাশাবং । রক ক্লাইম্বিং থেকে শুরু করে অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরিজমের নতুন ঠিকানা এই গ্রাম । স্থানীয় বেকার যুবকরা এখানে হোম-স্টে গড়ে তুলেছেন । মিরিক লেকের আদলে এখানে গড়ে তোলা হয়েছে নোকডারা লেক ।

কীভাবে যাবেন ?

ডুয়ার্সে যারা ঘুরতে আসেন তাদের জন্য এই পাশাবং গ্রামে যাওয়া খুবই সহজ । জলপাইগুড়ির মালবাজার থেকে ছোট গাড়ি নিয়ে লাভা দিয়ে যাওয়া যায় । এছাড়া ঝান্ডি হয়ে সামা ভিউ টি-গার্ডেন হয়েও যাওয়া যায় এই পাশাবং গ্রামে । মালবাজার থেকে এই গ্রামে যেতে প্রায় দু'ঘণ্টা সময় লাগবে ।

Pashabong Village
রক ক্লাইম্বিং, রাতে ক্যাম্প ফায়ার

কোথায় থাকবেন ?

পাশাবং গ্রামেই বেশ কিছু উদ্যোমী যুবক কটেজ তৈরি করেছেন । স্থানীয়দের নিয়ে মোট 8টি কটেজ রয়েছে । কটেজগুলি দেখতে খুবই আকর্ষণীয় ।কেউ পরিবার নিয়ে যেতে পারেন, আবার যদি কেউ কোনও গ্রুপ করে একসঙ্গে 7-8 জন যান তাহলে ডুপ্লেক্স রুমে থাকা যেতে পারে । তার জন্য আপনাকে বেশি টাকা খরচও করতে হবে না ।

ভাড়া মাত্র 2500 টাকা (7 জন) । জনপ্রতি 600 টাকা দিয়ে সকালের চা থেকে শুরু করে রাতে ডিনার সবই পাবেন ।

কী কী দেখবেন ?

পাশাবং এমন একটি গ্রাম যেখান থেকে টাইগার ফলস রয়েছে । যাকে বাক ঝরণা বলা হয় । যারা ভুগোলের ছাত্রছাত্রী তারা গীতখোলা রিভার বেডে পাথর নিয়ে পড়াশোনাও করতে পারবেন । ভুগোল নিয়ে যারা গবেষণার কাজ করেন তাদের জন্য এটি আদর্শ জায়গা । এছাড়া এখানে থেকে রক ক্লাইম্বিংয়ের মজা নিতে পারবেন পর্যটকরা । পাহাড়ের দেড় হাজার ফিট উঁচুতে গীতখোলা নদী অবস্থিত । পাহাড়ি ঝরণায় স্নান করার মজাও নিতে পারবেন পর্যটকরা । এখানে প্রচুর পাখি রয়েছে । শুধু তাই নয়, বিরল প্রজাতি 22-24 জোড়া রুফোর্স নেকড হর্নবিল রয়েছে ।

Pashabong Village
ভ্রমণের নয়া ডেস্টিনেশন পাশাবং

বার্ডওয়াচারদের জন্য এটি খুবই ভালো জায়গা । দীর্ঘ প্রয়াসের পর এই প্রথম পাহাড় ও সমতলের আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া বেকার ছেলেমেয়েদেরকে নিয়ে পর্যটনের এক নতুন জায়গায় উদ্ধার হয়েছে । কালিম্পং জেলার প্রত্যন্ত গ্রাম পাশাবং । শীতকালে গ্রামটি গোলাপি আর হলুদ ফুলে ছেঁয়ে যায় । যেখানে চা বাগান, জঙ্গল-সহ গীতখোলা নদী বয়ে যায় পাশাবং গ্রামের বুক চিরে ।

পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত রাজেন প্রধান জানান, এই জায়গাটা আমরা গত বছর খুঁজে বের করেছি । এই গ্রামটিতে আগামীতে পর্যটকের ঢল নামবে এটা বলতেই পারি । এই গ্রামে পর্যটক আসা মানেই বেকার যুবকদের মুখে হাসি ফোটা । পাশাবং গ্রামের পর্যটনের সাথে যুক্ত স্বরূপ মিত্র বলেন, "পাহাড়ের নদীর পাশেই থাকার মজাটাই আলাদা । এবার পুজোয় পর্যটকদের ঢল নামবে এই পাশাবং গ্রামে রাতে ক্যাম্প ফায়ারের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে ।"

আরও পড়ুন:

  1. শীতে পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা জানলে তা প্রতিদিন খাবেন
  2. শীতে হার্টের বিশেষ যত্ন নিতে চাইলে এই সহজ টিপসগুলি হৃদরোগের ঝুঁকি কমিয়ে দেবে
  3. পিম্পল চলে গেলেও দাগ থেকে যায়, প্রতিকার পান এভাবে
  4. প্রতিদিন ঘন কুয়াশায় বাইরে বেরোতে হয়? সুস্থ ও নিরাপদ থাকার জন্য এই ব্যবস্থাগুলি গ্রহণ করুন
Last Updated :Jan 25, 2024, 5:31 PM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.