কলিঙ্গে সুর্যোদয়, একযুগের খরা কাটিয়ে সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন ইস্টবেঙ্গল

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 28, 2024, 10:12 PM IST

Updated : Jan 28, 2024, 10:21 PM IST

Etv Bharat

East Bengal wins Super Cup: পিছিয়ে পড়ে প্রত্যাঘাত । আর তাতেই অন্ধকার সরিয়ে ট্রফির আলো । এক যুগ পরে সর্বভারতীয় মঞ্চে পোডিয়াম ফিনিশ ইস্টবেঙ্গল এফসির ।

ভুবনেশ্বর, 28 জানুয়ারি: সুপার কাপ ফাইনালে সুপার ক্লাইম্যাক্স । দু'দুটো লাল কার্ড । দু'দুটো পেনাল্টি । দু'টো বল পোস্টে লেগে প্রতিহত হওয়া । সব মিলিয়ে সুপার কাপ জয়ের কলিঙ্গ যুদ্ধ জমজমাট । শেষ পর্যন্ত বাজিমাত ইস্টবেঙ্গলের । নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটের ভুলে জয় পেতে আধঘণ্টা অপেক্ষা করতে হল লাল-হলুদকে । 2-2 গোলে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পরে অতিরিক্ত সময়ে ক্যাপ্টেন্স স্ট্রাইক ক্লেইটন সিলভার । 110 মিনিটে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকারের পা থেকেই এল জয়ের গোল ।

এক যুগ পরে সর্বভারতীয় মঞ্চে পোডিয়াম ফিনিশ ইস্টবেঙ্গল এফসির । কলিঙ্গ সুপার কাপের ফাইনালে ওড়িশা এফসিকে 3-2 গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন কার্লেস কুয়াদ্রাতের ছেলেরা । ইস্টবেঙ্গলের গোল নন্দকুমার, সাউল ক্রেসপো, ক্লেইটন সিলভার । ওড়িশা এফসির গোল দিয়াগো মৌরিসিও, আহমেদ জাহুর । উৎকলভূমে মাটিতে ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে পিছিয়ে পড়ে জয় ৷ যা কার্যত সিংহের গুহায় ঢুকে সিংহ শিকারের সমান । সেই কাজটাই রবিবাসরীয় কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে করলেন ক্লেইটন সিলভা, বোরহা হেরেরারা । ক্যাপির 113 মিনিটের গোলে এক যুগ পরে সর্বভারতীয় মঞ্চে পোডিয়াম ফিনিশ ইস্টবেঙ্গল এফসির ।

আইএসএলের মঞ্চে ইস্টবেঙ্গল বনাম ওড়িশা এফসি মানেই গোলের উৎসব । কিন্তু চলতি মরশুমে ছবিটা বদলেছে । আইএসএলে প্রথম সাক্ষাতে দুই দলের লড়াই গোলশূন্যভাবে শেষ । সুপার কাপ ফাইনালে তাই লড়াইটা ছিল দুই স্প্যানিশ কোচ কার্লেস কুয়াদ্রাত এবং সের্জিও লোবেরোর ফুটবল বুদ্ধির দ্বৈরথ । সেখানেই টেক্কা লাল-হলুদ হেডস্যরের ।

জাতীয় দল থেকে ফেরা মহেশ নাওরেম সিং এবং লালচুননুঙ্গাকে প্রথম একাদশে রাখেননি কুয়াদ্রাত । টানা চার ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে আসা একাদশে পরিবর্তন চাননি । শুরুটা দাপিয়ে করলেও গোলমুখে ব্যর্থতা ইস্টবেঙ্গলকে প্রথমার্ধে এগিয়ে যেতে দেয়নি । 33 মিনিটে সিভেরিও সহজ সুযোগ নষ্ট করেন । বোরহার পাস থেকে বল পেয়ে প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি । অন্যদিকে রয় কৃষ্ণ, দিয়াগো মরিসিও আহমেদ জাহুরা পাল্টা আক্রমণে লাল-হলুদ রক্ষণ ভাঙার চেষ্টা করতে থাকে । কিন্তু জোনাল মার্কিংয়ে ফাঁদে বারবার তাদের চেষ্টা ব্যর্থ হচ্ছিল । শেষ পর্যন্ত 39 মিনিটে রয় কৃষ্ণের পাস থেকে ওড়িশাকে এগিয়ে দেন দিয়াগো মরিসিও ।

বিরতির পরে ঘুরে দাঁড়ায় ইস্টবেঙ্গল । কুয়াদ্রাত নামান নাওরেম মহেশ সিংকে । ফলে আক্রমণে বৈচিত্র্য এবং ধার দু'টোই বাড়ে । ফলস্বরূপ 51 মিনিটে মহেশের বাড়ানো বল থেকে দলকে সমতায় ফেরান নন্দকুমার । এরপর একের পর এক লাল-হলুদ আক্রমণ আছড়ে পড়তে থাকে ওড়িশার রক্ষণে । প্রতিপক্ষের চাপ সামলাতে আহমেদ জাহু, মুর্তাদা ফলরা চোরাগোপ্তা মারের আশ্রয় নেন । যদিও কোনওভাবে রোখা যায়নি পদ্মাপাড়ের ক্লাবকে ৷

আরও পড়ুন:

  1. সুপার কাপ কি লালহলুদে সিভেরিওর ভবিষ্যত বদলে দেবে ? বেঙ্গালুরুতে চিঙ্গালসানা সিং
  2. আইএসএলের প্রথম ডার্বি 3 ফেব্রুয়ারি, ফিরতি বড়ম্যাচ 10 মার্চ
  3. সুপার কাপে নৌকাডুবি, বড় ম্যাচে মোহনবাগান 'বধ' ইস্টবেঙ্গলের
Last Updated :Jan 28, 2024, 10:21 PM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.