আমায় জেলে পুরে দিলেও জেল ফুটো করে বেরিয়ে আসব, হুঁশিয়ারি মমতার

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 1, 2024, 3:46 PM IST

Mamata Banerjee

Mamata Banerjee: বৃহস্পতিবার নদিয়ায় প্রশাসনিক সভা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তিনি একাধিক ইস্যুতে বিজেপি ও কেন্দ্রের মোদি সরকারের সমালোচনায় সরব হন ৷ ঘুরিয়ে তিনি ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের গ্রেফতারির প্রসঙ্গও তোলেন ৷ তাঁর কথায়, ‘‘আমায় জেলে পুরে দিলেও জেল ফুটো করে বেরিয়ে আসব ৷’’

কলকাতা, 1 ফেব্রুয়ারি: নাম না করে নদিয়ার সভা থেকে ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের গ্রেফতারি নিয়ে মুখ খুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । একই সঙ্গে তাঁর বার্তা, তাঁকে জেলে ঢোকানো হলেও বিজেপি বিরোধী লড়াই থেকে তিনি সরবেন না ।

প্রসঙ্গত, বুধবারই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর হেমন্ত সোরেনকে গ্রেফতার করেছে ইডি । এই ঘটনা নিয়ে আজ নদিয়ার সভা থেকেই কারও নাম নাম না করে সরব হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, ‘‘ভারতবর্ষে সবাইকে ভয় দেখিয়ে জেলে পুরে দেওয়া হচ্ছে । তবে আমাকে জেলে পুরে দিলেও ফুটো করে বেরিয়ে আসব ।’’

মমতার কথায়, ‘‘নির্বাচনে জেতার জন্য সবাইকে জেলে পুরছেন । আমাদের সবাই চোর৷ আপনারা সাধু ! হাজার হাজার কোটি টাকা চুরি করে রেশন না দিয়ে, 100 দিনের কর্মীদের টাকা না দিয়ে, বাংলায় বাড়ি করতে না দিয়ে... চোরেদের জোরদার জমিদার । চোরের মায়ের বড় গলা । শূন্য কলসি বাজে বেশি । আজ ক্ষমতায় আছে, তাই সঙ্গে এজেন্সি নিয়ে ঘুরছে । কাল ক্ষমতায় থাকবে না ৷ তখন সব উধাও হয়ে যাবে ।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘আমাদের ছেলে মেয়েরা কেউ চোর নয় । হাতের পাঁচটা আঙুল সমান হয় না । তাই বলে ওরা হাত কেটেই বাদ দিতে চাইছে । দলের একাংশ দুর্নীতিতে জড়িয়ে গিয়েছে । তাঁদের বিরুদ্ধে দল ব্যবস্থা নিয়েছে । কিন্তু তাই বলে গোটা দলকে চোর বলা যায় না । সিপিএমের কিছু লোক আমাদের দলে ঢুকেছিল, তারা বিভিন্ন অন্যায় করেছে । কিন্তু দল দুর্নীতির সঙ্গে আপোষ করছে না ।’’

এ দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গরুপাচার, কয়লা পাচার-সহ বিভিন্ন দুর্নীতিতে তৃণমূলকে জড়িয়ে দেওয়া নিয়ে কেন্দ্রকে আক্রমণ করতে ছাড়েননি । তিনি বলেন, ‘‘গরুপাচার, কয়লা পাচার তো হচ্ছে সীমান্ত দিয়ে । সীমান্ত রক্ষার দায়িত্ব বিএসএফের । কয়লার বিষয়টি দেখার দায়িত্ব সিআইএসএফের । সবটাই কেন্দ্রের আর দোষ দিচ্ছে তৃণমূলের ।’’ তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘গরু আসছে উত্তরপ্রদেশ-বিহার হয়ে৷ সেখানে তো বিজেপির সরকার । তাহলে সব দোষ কেন তৃণমূলের ?’’

এ দিন নদিয়ার সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন, ‘‘আপনি কাকে বাঁচাবেন, যে 365 দিন আপনার পাশে থাকে, না তাকে যে ভোটের আগে আসবে বসন্তের কোকিলের মতো ! আমার প্রতি আপনাদের ভরসা আছে, বিশ্বাস আছে, আস্থা আছে ! মনে রাখবেন, দিল্লি জয় আমরাই করব । বাংলাই দেশকে পথ দেখাবে ।’’

আরও একবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে জোট প্রসঙ্গ উঠে আসে । তিনি বলেন, ‘‘বাংলায় আমরা একাই লড়ব ৷ তার কারণ আমরা জোট চেয়েছিলাম । কংগ্রেস করেনি ৷ সিপিএম-কংগ্রেসের জোট হয়েছে । এই জোট হয়েছে বিজেপিকে সাহায্য করার জন্য । আমি সিপিএম করি না । বিজেপিও করি না ৷ আমি মা মাটি মানুষের দল করি । তাই আমাদের সরকার চলবে ৷ আপনাদের সংস্কারও হবে ।’’

আরও পড়ুন:

  1. বিজেপিকে ‘টাইট’ দিতে ‘পলিটিক্যাল ফাইট’ করতে পারে একমাত্র তৃণমূল, মমতার নিশানায় সিপিএম-কংগ্রেস
  2. মধ্যপ্রদেশ-রাজস্থানে ক্ষমতায় এসে মাছ-মাংস-ডিম খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে বিজেপি, অভিযোগ মমতার
  3. বিজেপির মুখে সিএএ-র কথা আসলে ভোটের রাজনীতি, দাবি মমতার
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.