ETV Bharat / bharat

দার্জিলিংয়ের সুগন্ধি চা, দামে পাল্লা দিচ্ছে সোনার সঙ্গেও - Darjeeling tea

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Mar 27, 2024, 9:03 PM IST

Darjeeling First Flush Tea: বিশ্বব্যাপী সুগন্ধযুক্ত দার্জিলিং ফার্স্ট ফ্লাশ টি সর্বদাই বিশ্ববাজারে চা প্রেমীদের মন জয় কাড়ে । এই বছর গুডরিক গ্রুপের অন্তর্গত বাদামতাম চা বাগান নতুন সিজনের বিদেশী দার্জিলিং স্প্রিং টি বিক্রি করেছে ৷ গোল্ডেন টিপস হল একটি সুপরিচিত দার্জিলিং চা রফতানিকারক সংস্থা ৷ তারা এই চা প্রতি কেজি 31 হাজার টাকায় কিনছে ।

Darjeeling tea
Darjeeling tea

কলকাতা, 27 মার্চ: চা প্রেমীদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকে সুগন্ধযুক্ত দার্জিলিং ফার্স্ট ফ্লাশ টি ৷ এবারে দার্জিলিংয়ের এই চায়ের বিশ্বব্যাপী রমরমা বাজার ৷ মরশুমের শুরুতেই এক কিলো প্রিমিয়াম জাতের প্রথম ফ্লাশ চায়ের দাম মিলছে 31 হাজার টাকা। গত বছরের প্রথম ফ্লাশ চায়ের তুলনায় প্রতি কিলোতে 4 হাজার টাকা বেশি । দার্জিলিং ফার্স্ট ফ্লাশ চায়ের উৎপাদন এই মার্চে কম হয়েছে ৷ তার প্রধান কারণ শুষ্ক আবহাওয়া এবং এক সপ্তাহ ধরে ভারী বৃষ্টি ৷

শীর্ষস্থানীয় দার্জিলিং চা কোম্পানি গোল্ডেন টিপস ৷ এই কোম্পানি রেকর্ড দামে গুডরিক গ্রুপের বাদামতাম চা এস্টেট থেকে নতুন মরশুমের বিদেশী দার্জিলিং বসন্ত চা সংগ্রহ করেছে এবং কিনেছে । গোল্ডেন টিপস প্রতি কেজি জৈব সাদা চা 31 হাজার টাকায় সংগ্রহ করেছে । এই বিশেষ চা এস্টেটের একটি অংশ থেকে তোলা হয়েছিল, যা উচ্চ মানের ক্লোন এসওয়াই – 1240 দিয়ে রোপণ করা হয়েছে । এই চায়ের বৈচিত্র্যের হল দেখতে সাদা ও উজ্জ্বল সবুজের মতো এবং একটি ফলের মতো স্বাদ রয়েছে । কোম্পানিটি 5 কেজি অর্গানিক হোয়াইট টি কিনেছে ।

চা ইউরোপ ও জাপানের রফতানি

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় 4500 ফুট উচ্চতায় অবস্থিত এস্টেট থেকে কয়েকদিন আগে ফার্স্ট ফ্লাশ চা তোলা হয়েছিল । রোদ, আর্দ্রতা, মাটির গুণাগুণ এবং বাতাসের একটি বিশেষ সংমিশ্রণ এই অঞ্চলের চাকে বিশেষ করে তোলে । দীর্ঘ শীতের সুপ্তাবস্থার পর সূক্ষ্ম কোমল কুঁড়ি এবং রসালো পাতা গজিয়েছে ৷ বিশেষ প্রশিক্ষিত শ্রমিকরা সাবধানে সেই পাতা ছিঁড়ে নিয়ে বাঁশের ঝুড়িতে বাগানের কারখানায় নিয়ে যায় । এই উচ্চ-মূল্যের চাগুলি মূলত ইউরোপ এবং জাপানের মতো বিশ্ব বাজারে রফতানি করা হয় ।

গোল্ডেন টিপসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মাধব সারদা বলেন, "আমরা গত কয়েক দশক ধরে বাগান থেকে উচ্চমানের চা সংগ্রহ করেছি । আমরা আবারও বাদামতাম চা বাগান থেকে সবচেয়ে বিদেশী স্প্রিং টি সংগ্রহ করতে পেরে আনন্দিত । সারা বিশ্বের চা প্রেমীদের বিশ্বমানের চা সরবরাহ করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য ৷ এই লক্ষ্যে আমাদের প্রাকৃতিক অংশীদার করে তুলেছে এবং আমাদের সম্পর্ক কেবল চায়ের উৎসের বাইরেও অনেক বেশি বিস্তৃত ৷"

এই অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে গোল্ডেন টিপসের 'ডাইরেক্ট সোর্সিং' মডেল, যা সরাসরি উৎপাদনকারীদের কাছ থেকে চা সংগ্রহ করে এবং চাষিরা যাতে ভালো দাম পায় তা নিশ্চিত করে । এটি চা শ্রমিকদের জন্য উন্নত সুযোগ-সুবিধা এবং উন্নত জীবনযাত্রার আকারে একটি উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক প্রভাব তৈরি করে । এটি উৎপাদনকারীদের নিলামের থেকেও দূরে রাখে ৷ কারণ গোল্ডেন টিপস তাদের থেকে সারা বছর চা কেনার আশ্বাস দেয় । উচ্চ-মানের, বাগানের তাজা চা তোলার কয়েক দিনের মধ্যে এবং সঠিক দামে সরাসরি চা বাগান থেকে পাওয়া ।

দার্জিলিংয়ের চা বাগানগুলি এখন বছরে 6.5-6.8 মিলিয়ন কেজি চা উৎপাদন করে । এর মধ্যে 20 শতাংশই ফার্স্ট ফ্লাশ টি । বাকি 80 শতাংশ চায়ের মধ্যে অন্য 20 শতাংশে রয়েছে সেকেন্ড ফ্লাশ টি এবং 60 শতাংশ রেইন টি নামে পরিচিত ।

আরও পড়ুন:

  1. রাতে মনে হচ্ছে বেশি খেয়েছেন ? হজমের সমস্যা সমাধানে পান করুন আদা চা
  2. দেশের চা উৎপাদনের 53 শতাংশে জড়িত ছোট চা-চাষিরা
  3. ব্ল্যাক টি-তে চুমুক দিয়ে দিন শুরু করুন, জেনে নিন এর উপকারিতা
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.