ETV Bharat / state

অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে ব্রিগেডে বামেদের মঞ্চে পাঠানো উচিত প্রধান বিচারপতির, বিস্ফোরক কুণাল

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Jan 7, 2024, 12:28 PM IST

Updated : Jan 7, 2024, 2:01 PM IST

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে ব্রিগেডে বামেদের মঞ্চে পাঠানো উচিত প্রধান বিচারপতির ৷ নন্দীগ্রামে গিয়ে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন কুণাল ঘোষ ৷

ETV BHARAT
ETV BHARAT

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে তোপ কুণালের

নন্দীগ্রাম, 7 জানুয়ারি: প্রধান বিচারপতির উচিত একটা ক্রেন পাঠিয়ে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্য়ায়কে আজ ব্রিগেডের মঞ্চে ছেড়ে দিয়ে আসা ৷ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে নিশানা করে ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ ৷

রবিবার নন্দীগ্রামের ভাঙাবেড়াতে নন্দীগ্রাম ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত শহীদ স্মরণ সভায় যোগ দিতে গিয়ে কুণাল ঘোষ আবারও সরব হন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ৷

তিনি বলেন, "জাস্টিস কমরেড অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এক্সপোসড হয়ে বারবার নিজের রাজনৈতিক উইশলিস্ট প্রকাশ করে ফেলছেন ৷ বিচারপতি ও কোর্টের একটা সম্মান আছে, তাদের প্রতি মানুষের আস্থা আছে ৷ কিন্তু এ রকম কয়েকজন বিচারপতি প্রকাশ্যে রাজনৈতিক কথাবার্তা বলে আদালতের বিশ্বাসযোগ্যতা নষ্ট করে দিচ্ছেন ৷ প্রধান বিচারপতির উচিত, একটা ক্রেন পাঠিয়ে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্য়ায়কে আজ ব্রিগেডের মঞ্চে ছেড়ে দিয়ে আসা ৷ কারণ তিনি আদ্যন্ত সিপিএম ৷"

এ দিন ডিওয়াইএফআইয়ের ব্রিগেড সমাবেশকেও তীব্র কটাক্ষ করেন কুণাল ঘোষ ৷ তাঁর কথায়, "ডিওয়াইএফআইয়ের ব্রিগেড সমাবেশের নামে কিছু লোক আজ ব্রিগেড যাবেন ৷ যে লোকগুলো সিপিএমকে ভোট দেবেন না ৷ সিপিএমের কাছে ব্রিগেড নতুন নয় ৷ একুশ সালেও ব্রিগেড করেছে ৷ তারপর শূন্য পেয়েছে ৷ কাজেই মিডিয়া বা সোশাল মিডিয়ায় ব্রিগেডে লোক দেখিয়ে কী হবে, বলছে শিয়ালদা থেকে এত মানুষ আসছে ৷ আরে ঘোড়ার ডিম, সিট তো সেই শূন্য় ৷ বিজেপিকে ভোট দিচ্ছে সিপিএম ৷ সিপিএমের যারা আজ লাল ঝান্ডা নিয়ে যাবেন, তাঁরা চক্ষুলজ্জায় বলতে পারবেন না ৷ তাঁদের মধ্যে কিছু মানুষ যাঁদের বাড়িতে কন্যাশ্রী থেকে সবুজসাথী থেকে লক্ষ্মীর ভান্ডার নেন, তাঁরা চুপচাপ তৃণমূলকে ভোট দেবেন ৷ আর যাঁরা অন্ধ তৃণমূলবিরোধী, তাঁরা বিজেপিকে ভোট দেবেন ৷ সিপিএমের খাতা তো থাকবে শূন্য ৷"

কুণালের কথায়, "সিপিএমের ব্রিগেড মানেই সিপিএমকে ভোট নয় ৷ সিপিএমের কাছে প্রথম চ্যালেঞ্জ তাদের ভোটটা আগে বিজেপির কাছ থেকে কেড়ে আনুক ৷ সিপিএম কমেছে, বিজেপি বেড়েছে ৷ তো সিপিএম বড় বড় কথা বলবে পরে ৷ ব্রিগেড দেখিয়ে কী হবে ৷ 42টা সিটে সিপিএমের ক্ষমতা থাকলে একা লড়ুক ৷ জামানত জব্দ হবে ৷ শূন্য পাবে ৷ তাই ব্রিগেডের কোনও ভ্যালু নেই ৷"

এ দিন জাতীয় ক্ষেত্রে বিরোধী দলগুলির জোট ইন্ডিয়া প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে প্রদেশ কংগ্রেসকে একহাত নেন কুণাল ৷ তিনি বলেন, "দেশের ক্ষেত্রে ইন্ডিয়া জোট লড়ছে ৷ সোনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এককাট্টা হয়ে লড়ছেন ৷ কিন্তু এ রাজ্যে অধীর চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রদেশ কংগ্রেসের একাংশ বিজেপির দালালি করছে ৷ সিপিএমের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিজেপিকে অ্যাডভান্টেজ পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে ৷"

সন্দেশখালি প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তৃণমূল মুখপাত্র বলেন, ইডি অফিসার আহত হওয়া এগুলো খুব দুঃখের ৷ তবে তাঁর সাফাই, এলাকার পরিচিত লোকের বাড়িতে সকালবেলা তালা ভাঙছে দেখলে এলাকার লোক ক্ষুব্ধ হয়ে যায় ৷ এই ফাঁদগুলো তারা পেতে দিচ্ছে ৷ বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে একহাত নিয়ে কুণাল বলেন, "শুভেন্দুর নামে এফআইআর থাকলেও তাঁর বাড়িতে রেইড হবে না ৷ আর তিনি চোখ পাকিয়ে বলবেন, কার কার বাড়িতে রেইড হবে এটা ঠিক না ৷" শেখ শাহজাহান নিয়ে এ দিন বিস্তারিত কিছু বলতে চাননি কুণাল ঘোষ ৷

প্রসঙ্গত, 2007 সালে এই দিনে ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির ভরত মণ্ডল, শেখ সেলিম ও বিশ্বজিৎ মাইতি শহীদ হন । সেই বছর থেকেই তৃণমূলের তরফ থেকে শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে প্রতি বছর শহীদ সভা পালন করা হয় । শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করার পর দুই রাজনৈতিক দল তৃণমূল ও বিজেপির শহীদ স্মরণ সভার পৃথক অনুষ্ঠান শুরু হয় । গতকাল রাতে তৃণমূলের সভামঞ্চের পাশেই কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে পোস্টার পড়েছিল ৷ সে প্রসঙ্গে কুণালের মন্তব্য, বিজেপি ভয় পেয়েছে বলেই পোস্টার দেওয়া হয়েছে ৷

আরও পড়ুন:

  1. 'যাঁর খোঁজে এসেছিল, তাঁরই রাত বারোটার মধ্যে ইডি অফিসে যাওয়া উচিত', মন্তব্য বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের
  2. বিচারপতি অমৃতা সিনহার স্বামীকে সিআইডি তলব, এবার মুখ খুললেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়
  3. চোর আসছে চালসায়', শুভেন্দুকে কটাক্ষ করে মানুষকে সতর্ক করলো তৃণমূলের আইটি সেল
Last Updated : Jan 7, 2024, 2:01 PM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.