শহরে এসে জাতীয় টেবিল টেনিস অ্যাকাডেমির পরিকল্পনার কথা জানালেন কমলেশ মেহতা

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 16, 2024, 9:32 AM IST

Updated : Jan 16, 2024, 2:44 PM IST

জাতীয় টেবিল টেনিস অ্যাকাডেমির পরিকল্পনা রয়েছে বললেন কমলেশ মেহতা

Table Tennis: টিটিএফআই ন্যাশনাল টেবিল টেনিস অ্যাকাডেমির পরিকল্পনা করছে বলে জানালেন আটবারের টেবিল টেনিস জাতীয় চ্যাম্পিয়ন কমলেশ মেহতা ৷

জাতীয় টেবিল টেনিস অ্যাকাডেমির পরিকল্পনা রয়েছে বললেন কমলেশ মেহতা

কলকাতা, 16 জানুয়ারি: অনেকদিন পরে কলকাতায় আটবারের টেবিল টেনিস জাতীয় চ্যাম্পিয়ন কমলেশ মেহতা। প্রাক্তন প্যাডলার হিসেবে নয়, তিনি এসেছিলেন 85তম ইন্টার স্টেট জুনিয়র অ্যান্ড ইয়ুথ টেবিল টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে। দু'দিনের সফরে ভারতীয় টেবিল টেনিসের ভবিষ্যৎ তারকাদের খেলতে দেখলেন। অঙ্কুর ভট্টাচার্য, সিন্ড্রেলা দাস, বোধিসত্ত্ব চৌধুরীদের খেলায় আশার আলো দেখছেন। একজন প্রাক্তন খেলোয়াড় হিসেবে মনে করেন স্বপ্নপূরণ করতে সময় জরুরি।

স্বপ্নপূরণে কঠোর পরিশ্রম প্রয়োজন। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরেছেন। 1982 সালে চিনের প্যাডলারদের পরাজিত করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। যা তখনই সম্ভব না-হওয়ায় সমালোচনার তির সহ্য করতে হয়েছিল। কিন্তু হতোদ্যম না হয়ে লক্ষ্যে স্থির ছিলেন। ফলস্বরূপ স্বপ্নপূরণ হয়েছিল 1992 সালের বার্সেলোনা অলিম্পিকের আসরে। একইভাবে চটজলদি সাফল্যের জন্য ঝাঁপাতে বারণ করেছেন। কিংবা ব্যর্থতায় হতাশ হতে বারণ করেছেন। এক্ষেত্রেও নিজের জীবনের কথা শুনিয়েছেন।

প্রথমবার কলকাতার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। তার আগে কখনও চ্যাম্পিয়ন হননি। একইভাবে পয়মন্তী বৈশ্যের এবছর জাতীয় সেরা হওয়ার বিষয়টিও কমলেশ মেহতার মুখে। কারণ পয়মন্তীও এবারই প্রথম জাতীয় চ্যাম্পিয়ন। ক্রীড়াবিদের পোশাক ছেড়ে প্রশাসকের চেয়ারে। ম্যাচ খেলার থেকে ম্যাচ আয়োজন ভিন্ন চ্যালেঞ্জ। যা উপভোগ করছেন তিনি। তবে সফল না ব্যর্থ তা টেবিল টেনিসের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা বলতে পারবেন বলে মনে করেন। ভারতীয় টেবিল টেনিসের অন্দরে বেশ কিছু অনিয়ম চলছে বলে অভিযোগ উঠছে।

রাজস্থান টেবিল টেনিস সংস্থায় প্রশাসনিক জটিলতা রয়েছে। যার জেরে দু'টো দল পাঠিয়েছে ইয়ুথ অ্যান্ড জুনিয়র ন্যাশনালে। টেবিল টেনিস ফেডারেশনের সচিব কমলেশ মেহতা বলছেন টিটিএফআই কোনও রাজ্য সংস্থার আভ্যন্তরীণ বিষয়ে ঢুকতে রাজি নয়। তারা প্যাডলারদের স্বার্থ দেখতেই আগ্রহী। তাই প্যাডলাররা যাতে খেলার সুযোগ থেকে বঞ্চিত না-হন তাই দু'টো দল পাঠানোর ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছে। একইভাবে বাংলার টেবিল টেনিসের চ্যাপ্টার ওয়ান এবং চ্যাপ্টার টু-এর দ্বন্দে মাথা গলাতে নারাজ।

ওয়ান স্টেট ওয়ান অর্গানাইজেশন নীতি মেনে তাই বিএসটিটিএ-কে বৈধতা কমলেশ মেহতার। একইভাবে টিটিএফআই যে স্পোর্টস কোড প্রণয়নে আগ্রহী তাও জানিয়েছেন। ভারতীয় টেবিল টেনিসের উন্নতির গ্রাফ দেখে আশাবাদী। প্যারিস অলিম্পিকে ভারতীয় দলের অংশগ্রহণ এবং সাফল্যের স্বপ্ন তাঁর চোখে। ইউটিটির মধ্যে আইপিএলের ছায়া রয়েছে বলে মনে করেন। তবে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে ম্যাচ আয়োজন শুরু করেও বন্ধ করতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন কমলেশ মেহতা। ভারতীয় প্যাডলারদের আরও বেশি করে তুলে নিয়ে আসতে এবং তাদের উন্নত পরিকাঠামোয় গড়ে তুলতে টিটিএফআই ন্যাশনাল টেবিল টেনিস অ্যাকাডেমির পরিকল্পনা করছে বলে জানালেন কমলেশ মেহতা।

আরও পড়ুন:

  1. কিউয়িদের হারিয়ে অলিম্পিক্সে যাওয়ার আশা বেঁচে রইল মহিলা হকি দলের
  2. অঙ্কুরের ত্রিমুকুট, জাতীয় টেবিল টেনিসে বাংলার ছেলেদের দাপট
  3. সিনিয়র জাতীয় দলে জায়গা পাকা করাই পাখির চোখ বিশ্বের এক নম্বর প্যাডলারের
Last Updated :Jan 16, 2024, 2:44 PM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.