Astronomical Research: 11 বছর বয়সেই গ্রহাণু আবিষ্কার, মহাকাশ গবেষণায় নজির হায়দরাবাদের পল্লম সিদ্ধিক্ষার

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Nov 13, 2023, 7:53 PM IST

Astronomical Research

Hyderabad kid wins kudos from NASA: তেলেঙ্গানার হায়দরাবাদের বাসিন্দা পল্লম সিদ্ধিক্ষা ৷ 11 বছর বয়সেই মহাকাশ গবেষণা করে সকলকে চমকে দিয়েছে সে ৷ ভবিষ্যতে নাসা বা ইসরোতে কাজ করতে চায় সে ৷

হায়দরাবাদ, 13 নভেম্বর: জ্যোতির্বিদ্যা নিয়ে গবেষণা করে সকলকে চমকে দিয়েছে পল্লম সিদ্ধিক্ষা নামে বছর 11 এক বালিকা ৷ তেলেঙ্গানার হায়দরাবাদ শহরতলির এই মেয়েটি সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে ৷ তার সমবয়সীরা যখন স্কুল ও খেলাধুলো নিয়ে মেতে, তখন সে পড়াশোনার পাশাপাশি গবেষণা করছে জ্যোতির্বিদ্যা নিয়ে ৷ এই বিষয়ে তার অনুপ্রেরণা তার দিদি শ্রীয়া ৷ দিদির সঙ্গে মিলে একটি গ্রহাণুও খুঁজে বের করেছে ৷ এর জন্য তাকে শংসাপত্রও দিয়েছে নাসা ৷

পল্লমের মা ড. চৈতন্য বিজয়া স্কুল অফ বিজনেস ম্যানেজমেন্টে অধ্যক্ষ হিসাবে কর্মরত ৷ তার বাবা বিজয় শেয়ারবাজারে ব্যবসা করেন । তারা হায়দরাবদ শহরতলির আবদুল্লাপুরমেটের বাসিন্দা । সে পাঁচ বছর বয়স থেকে ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্যে পারদর্শী এবং অনেক পদকও জিতেছে । তবে বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার জ্যোতির্বিজ্ঞানী হওয়ার ইচ্ছে বেড়েছে ৷ আগামিদিনে সে ইসরো বা নাসার হয়ে কাজ করতে চায় ৷

সিদ্ধিক্ষা ও তার দিদি শ্রীয়া 2018 সালে নাসা দ্বারা আয়োজিত 'সায়েন্টিস্ট ফর ডে' প্রতিযোগিতায় একটি শংসাপত্র পেয়েছে । তখন সিদ্ধিক্ষার ছয় বছর বয়স৷ তবে মহাকাশ নিয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে তার মা তাকে খুব সাহায্য করেন ৷ এছাড়া সে মহাকাশ বিষয়ক দিল্লির স্পেসপোর্ট ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সমীর সচদেবা দ্বারা প্রশিক্ষিত হয়েছিলেন । 2020 সালে তিনি 'ইন্টারন্যাশনাল অবজারভ দ্য মুন নাইট' প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন ।

সিদ্ধিক্ষা ও তার দিদি শ্রীয়া গ্রহাণু অনুসন্ধান অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন এবং গ্রহাণু 2021 জিসি103 আবিষ্কার করেছিলেন ৷ 2021 সালে নাসা থেকে একটি শংসাপত্র পেয়েছিলেন । গত বছরের সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবরে অনুষ্ঠিত গ্রহাণু অনুসন্ধান অভিযানে সিদ্ধিক্ষা প্যান স্টার টেলিস্কোপের ছবি বিশ্লেষণ করে মঙ্গল ও বৃহস্পতির মধ্যবর্তী গ্রহাণু আবিষ্কার করেন । এর নাম দেওয়া হয়েছে 2022এসডি66 । 30 অক্টোবর প্যারিসে অনুষ্ঠিত ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়নে নাসার ওয়ার্ল্ড মাইনর বডি ক্যাটালগেরও অংশ নিয়েছিল সে ৷

স্বাতীমোহন, যিনি নাসায় একজন বিজ্ঞানী হিসেবে কাজ করছেন, তিনি সিদ্ধিক্ষা ও শ্রীয়ার আত্মীয় । 2010 সালে তিনি মঙ্গল মিশনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এবং রোভারের মঙ্গল গ্রহে সফল অবতরণের পরে তিনি প্রচারের আলোয় আসেন ৷ স্বাতীমোহনও এই দুই বোনকে মহাকাশ গবেষণায় উৎসাহ দেন ৷

জ্যোতির্বিজ্ঞান গবেষণায় গ্রহাণুর উপস্থিতি সনাক্তকরণে সিদ্ধিক্ষার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল রিসার্চ কোলাবরেশন-এআইএসসি তাকে টেক্সাস হার্ডিন-সিমন্স ইউনিভার্সিটির সঙ্গে একটি শংসাপত্র দেয় । সিদ্ধিক্ষা বৈজ্ঞানিকভাবে মহাবিশ্বের অনেক বিষয়ে সহজে ব্যাখ্যাও দিতে পারে ৷

আরও পড়ুন:

মহাকাশযানের আনা প্রথম গ্রহাণুর নমুনার ছবি প্রকাশ নাসার

মঙ্গলে সূর্যাস্ত ! মহাজাগতিক মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করল নাসার পাঠানো যান

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.