পদের লোভ দেখিয়ে লাগাতার ধর্ষণে আত্মঘাতী মহিলা কর্মী ! বেপাত্তা বাঁকুড়ার বিজেপি নেতা

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 28, 2024, 4:58 PM IST

ETV BHARAT

Bankura Rape Case: পদের লোভ দেখিয়ে দিনের পর দিন নেত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ বাঁকুড়ায় ৷ অভিযোগ, সম্মানহানির আশঙ্কায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন ওই নির্যাতিতা ৷ পলাতক অভিযুক্ত বিজেপি নেতা ৷

বাঁকুড়া, 28 জানুয়ারি: পদের লোভ দেখিয়ে এক মহিলা কর্মীকে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগ উঠল বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে । অভিযোগ, পুলিশের কাছে জানিয়েও কোনও লাভ না হওয়ায়, সম্মানহানির ভয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন নিগৃহীতা ৷ গত পৌর নির্বাচনে সোনামুখী পৌরসভার বিজেপি প্রার্থী ছিলেন তিনি । অভিযোগের তির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সম্পাদক তরুণ সামন্তের দিকে ৷ বর্তমানে তিনি বেপাত্তা ৷ লোকসভা ভোটের আগে দলের এক জেলা নেতার বিরুদ্ধে এমন মারাত্মক অভিযোগ ওঠায় বেজায় অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির ৷

গত পৌরভোটে সোনামুখীতে বিজেপির হয়ে প্রার্থী হয়েছিলেন ওই মহিলা কর্মী ৷ সেই সময়ই দলের পর্যবেক্ষক হয়ে সেখানে গিয়েছিলেন বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সম্পাদক তরুণ সামন্ত । তাঁর সঙ্গে পরিচয় হয় বিজেপির ওই নেত্রীর । অভিযোগ, সেই সময়েই ওই বিজেপি নেত্রীকে দলের উঁচু পদে বসানোর লোভ দেখিয়ে ঘনিষ্ঠতা বাড়ান তরুণ সামন্ত এবং বিষ্ণুপুরে বৈঠকের নাম করে তিনি ওই নেত্রীকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ ।

হুমকির ভয়ে ও সম্মানহানির আশঙ্কায় প্রথমে কারওকে কিছু জানাননি নিগৃহীতা ৷ এরপর মোবাইলে তোলা ধর্ষণের ভিডিয়ো সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাঁকে অভিযুক্ত নেতা দিনের পর দিন ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ । একদিন আর সহ্য করতে না পেরে স্বামীকে সব কথা জানান ওই বিজেপি নেত্রী ৷ এরপর গত বছরের 13 অক্টোবর তাঁরা অভিযুক্ত বিজেপি নেতা তরুণ সামন্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন সোনামুখী থানায় ৷ কিন্তু তারপরেও তাঁকে পুলিশ গ্রেফতার করেনি ।

এমনকি অভিযুক্ত তরুণ সামন্ত ওই বিজেপি নেত্রীকে বারবার ফোন করে কটূক্তি করতে থাকেন বলে অভিযোগ । তিনি হুমকি দিয়ে দাবি করেন, আইন আদালত তাঁর হাতের মুঠোয় । অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হবে না ৷ অভিযুক্ত ওই বিজেপি নেতা লাগাতার ফোন ও মেসেজে কুৎসিত মন্তব্য করতে থাকলে নির্যাতিতা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন বলে অভিযোগ ৷ তারই জেরে চলতি মাসের 23 তারিখ তিনি ঘরে ঢুকে দরজায় ভেতর থেকে খিল তুলে দিয়ে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ করেছেন তাঁর স্বামী ৷ পরে দরজা ভেঙে ওই মহিলার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয় ।

অভিযুক্ত বিজেপি নেতার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছিল ইটিভি ভারত ৷ তবে বারবার ফোন করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি ৷ তাঁর ফোন সুইচড অফ এসেছে ৷ মৃত বিজেপি নেত্রীর স্বামী জানান, তাঁর স্ত্রীর মৃত্যুর আগেই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন । এ বার তাঁর স্ত্রীর মৃত্যুর জন্য অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সোনামুখী থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ জানিয়েছেন । অভিযুক্ত বিজেপি নেতার কঠোরতম শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে ।

বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির মুখপাত্র দেবপ্রিয় বিশ্বাস জানান, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত হোক ৷ যদি কেউ দোষী সাব্যস্ত হয় তার সাজা হোক ৷ তদন্তের পূর্বেই তিনি এই নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি ৷

আরও পড়ুন:

  1. যুবতীকে মদ্যপান করিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, অধরা অভিযুক্ত যুবক
  2. খুনের পর ধর্ষণ ! অটোচালকের বিকৃতির শিকার নার্স, গ্রেফতার অভিযুক্ত
  3. বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার 3
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.