উদ্ধার মুণ্ডহীন দেহ, নাবালিকাকে খুনের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ মালদা

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 1, 2024, 6:16 PM IST

Minor Death

Protest Over Minor Death: নৃশংসভাবে গলা কেটে নাবালিকাকে খুনের ঘটনাকে ঘিরে বৃহস্পতিবার অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল মালদা শহর ৷ টায়ার জ্বালিয়ে ও পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখানো হয় ৷ ইংরেজবাজার থানা ঘেরাও করে বিজেপিও ৷ ঘটনার প্রতিবাদে পথে নামে বাম শিবিরও ৷

নাবালিকাকে খুনের ঘটনাকে ঘিরে অগ্নিগর্ভ মালদা শহর

মালদা, 1 ফেব্রুয়ারি: নৃশংসভাবে গলা কেটে নাবালিকাকে খুনের অভিযোগে অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল মালদা শহর ৷ উত্তেজিত জনতা বৃহস্পতিবার ধৃত যুবকের বাড়ির সামগ্রী বাইরে বের করে আগুন ধরিয়ে দেয় ৷ সেখানে সংবাদমাধ্যমকে ছবি তুলতেও বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত নাবালিকার তুতো দাদা ৷ অভিযুক্তের ফাঁসির দাবিতে শহরের ফোয়ারা মোড় ও রথবাড়িতে টায়ার জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করা হয় ৷ সবার দাবি, এই নৃশংস ঘটনায় দোষীকে ফাঁসির সাজা দিতে হবে ৷ ফোয়ারা মোড়ে প্রায় 45 মিনিট অবরোধ করা হলেও পুলিশের দেখা মেলেনি ৷ তবে রথবাড়ি এলাকায় জাতীয় সড়ক অবরোধ হতেই ময়দানে নামে পুলিশ । অবশেষে পুলিশি আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষোভকারীরা ।

মালদায় নিজের বোনকে গলা কেটে খুনের অভিযোগ ওঠে এক যুবকের বিরুদ্ধে ৷ মুণ্ডহীন নাবালিকার দেহ উদ্ধার হয় ৷ জানা গিয়েছে, পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে নাবালিকাকে খুনের কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত ৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার রাত থেকে তোলপাড় হয়ে ওঠে মালদা শহর ৷ বৃহস্পতিবারও মালদা শহর জুড়ে চলছে মানুষের প্রতিবাদ ৷

জানা গিয়েছে, 29 জানুয়ারি সন্ধেয় মালদা শহরের এক এলাকা থেকে 11 বছরের নাবালিকার নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ দায়ের হয় ইংরেজবাজার থানায় ৷ নিখোঁজ নাবালিকার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে ৷ ফুটেজে দেখা যায়, ওই নাবালিকা এক যুবকের মোটরবাইকে উঠে চলে যাচ্ছে ৷ ক্যামেরার ফুটেজ দেখে রাতেই এক যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ ৷ প্রথমে পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে ওই যুবক ৷ কিন্তু তার সমস্ত বয়ান যাচাই করে পুলিশ নিশ্চিত হয়, নাবালিকা নিখোঁজের ঘটনায় ওই যুবক জড়িত ৷

এ দিকে বুধবারই মালদা শহরে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও জাতীয় যুব কংগ্রেসের চেয়ারপার্সন রাহুল গান্ধি ৷ দুই ভিভিআইপির উপস্থিতিতে গতকাল পুলিশ এই ঘটনার তদন্তে খুব একটা এগোতে পারেনি ৷ তাঁরা দু'জন শহর ছাড়তেই ফের নাবালিকাকে উদ্ধারে লেগে পড়ে পুলিশ ৷ ফের আটক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয় ৷ তখনই ধৃত যুবক নাবালিকার জ্যেঠতুতো দাদা স্বীকার করে নেয়, সে বোনকে খুন করেছে ৷ তার দেখানো জায়গা থেকে পুলিশ শহরের আম বাজার থেকে নাবালিকার গলাকাটা ধর উদ্ধার করে ৷ মুণ্ড উদ্ধার হয় ধর থেকে 50 মিটার দূরে একটি পুরোনো গুদামঘরের ছাদ থেকে ৷ উদ্ধার হাওয়া ধর ও মুণ্ড ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই মালদা মেডিক্যালে পাঠায় পুলিশ ৷

এদিকে এই খবর চাউর হতেই ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ইংরেজবাজার থানার সামনে ৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে গভীর রাতে থানায় ছুটে আসেন ডেপুটি পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ৷ গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে নাবালিকার পাড়া ৷ অন্যদিকে এই ঘটনার জেরে আজ দুপুরে ইংরেজবাজার থানা ঘেরাও করে বিজেপিও । পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে বিকেলে ময়দানে নামে বাম শিবিরও ।

পুলিশ সুপার প্রদীপকুমার যাদব জানান, প্রাথমিক জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে যে মৃত নাবালিকার বাবার সঙ্গে তার কিছু ঝামেলা ছিল । এর জের ধরেই নাবালিকা নিয়ে গিয়ে খুন করে ৷ যুবক ওই নাবালিকাকে আম বাজারের নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে গলায় ছুরি ধরে ভিডিয়ো করার পরিকল্পনা নিয়েছিল । কিন্তু সেই সময় ওই নাবালিকা ভয় পেয়ে নড়াচড়া করতে থাকায় তার গলা কেটে যায় । অতিরিক্ত রক্তপাত হতে থাকায় ভয়ে প্রমাণ লোপাটের উদ্দেশ্যে সে দেহ থেকে গলা আলাদা করে ভিন্ন জায়গায় ফেলে দেয় ।

পুলিশ সুপার বলেন, "প্রাথমিকভাবে ধৃতের এই বয়ান হলেও পরিকল্পনামাফিক খুনের বিষয়টি এখনও আমরা উড়িয়ে দিচ্ছি না । ওই নাবালিকাকে কোনওভাবে যৌন নির্যাতন করা হয়েছে কি না, সেটাও আমরা খতিয়ে দেখছি । ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলেই তা পরিষ্কার হয়ে যাবে । আপাতত ধৃতকে 14 দিনের পুলিশি হেফজতের আবেদনে আমরা আজ মালদা জেলা আদালতে পেশ করেছি ।" সকাল থেকে দফায় দফায় মালদা শহর অগ্নিগর্ভ হওয়া প্রসঙ্গে পুলিশসুপার বলেন, "এটা খুব অমানবিক ঘটনা । মানুষ ঘটনার ক্ষোভে প্রতিবাদ করেছে । আমরা সাধারণ মানুষকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে ।"

আরও পড়ুন:

  1. নিখোঁজ নাবালিকার মুণ্ডহীন দেহ উদ্ধার, অভিযুক্তের বাড়ি ভাঙচুর উত্তেজিত জনতার
  2. গলায় জড়ানো তার, যুবকের দেহ উদ্ধার রাজারহাটে
  3. কন্যাশ্রীর টাকা পাইয়ে দেওয়ার নামে নাবালিকাকে লাগাতার ধর্ষণ, গ্রেফতার অভিযুক্ত
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.