মার্কিন দতাবাসে হেনস্তার অভিযোগ জানালেন প্রবাসী ইঞ্জিনিয়র, লালবাজারের জালে এক অভিযুক্ত

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 1, 2024, 7:36 PM IST

Kolkata Police

Attack on NRI in Kolkata: গত মঙ্গলবার রবীন্দ্র সরোবর থানা এলাকার কাকুলিয়া রোডে এক প্রবাসী ইঞ্জিনিয়রকে হেনস্তার অভিযোগ ওঠে ৷ এই নিয়ে তিনি মার্কিন দূতাবাসে অভিযোগ জানান ৷ তারপর একজনকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ ৷ তবে লালবাজার মার্কিন দূতাবাস থেকে ফোন পাওয়ার পর তদন্ত শুরুর অভিযোগ অস্বীকার করেছে ৷

কলকাতা, 1 ফেব্রুয়ারি: মার্কিন দূতাবাসে অভিযোগ জানানোর পর অবশেষে সুরাহা মিলল আমেরিকা প্রবাসী বাঙালি জিষ্ণু নাথের ৷ সূত্রের খবর, এরপরেই মার্কিন দূতাবাস থেকে ফোন যায় লালবাজারে । অবশেষে মার্কিন দূতাবাসের ফোন পেয়ে নড়েচড়ে বসে লালবাজার । এই ঘটনায় যুক্ত সন্দেহে ভোলা প্রামাণিক নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ । তবে এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত এখনও পলাতক বলে জানা গিয়েছে । যদিও এই বিষয়ে লালবাজারের দাবি, মার্কিন দূতাবাস থেকে জানানো হলেও তার আগে থেকেই তারা তদন্তে নেমেছিল । একজনকে গ্রেফতারও করা হয়৷ মূল অভিযুক্তের খোঁজ চলছে ৷

জিষ্ণু নাথের বাড়ি কলকাতার রবীন্দ্র সরোবর থানার গোলপার্কের কাকুলিয়া রোডে ৷ তিনি বর্তমানে থাকেন আমেরিকার সিয়াটেলে । গত 17 জানুয়ারি নিজের কলকাতার বাড়িতে ফেরেন । তাঁদের দীর্ঘদিনের পুরনো বাড়ির সংস্কার করতেই তাঁর কলকাতায় আসা । জিষ্ণু নাথের অভিযোগ, তাঁর বাড়ির উপর নজর ছিল প্রোমোটার 'ভাইলো'র ৷ বাড়ি সংস্কারের কথা কানে গেলে দলবল পাঠিয়ে জিষ্ণুকে হুমকি দেন ‘ভাইলো’ ৷ ওই প্রবাসী সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়রকে নিজের বাড়ি সংস্কারের কাজ 'ভাইলো'র ঠিকা সংস্থাকে দিয়েই করাতে বলা হয় ৷ না হলে এলাকায় থাকা মুশকিল বলে হুমকি দেয় ‘ভাইলো’র লোকজন ।

ওই প্রবাসী বাঙালি বিষয়টি প্রথম দিকে গুরুত্ব দেননি । বরং তিনি অন্য একটি ঠিকা সংস্থাকে নিজের বাড়ি সংস্কারের গোটা দায়িত্ব দিয়ে দেন । খবরটি 'ভাইলো'র কানে যাওয়া মাত্রই ওই প্রবাসী বাঙালিকে মারধর করেন এবং মেরে তাঁর নাক-মুখ ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ।

জিষ্ণুর দাবি, এই ঘটনায় স্থানীয় রবীন্দ্র সরোবর থানায় তিনি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন । তবে ঘটনাটি ঘটে যাওয়ার পরে সেই ঘটনায় যুক্ত থাকার সন্দেহে প্রথম দিকে পুলিশ কাউকেই গ্রেফতার করেনি । অবশেষে বাধ্য হয়ে তিনি মার্কিন দূতাবাসের গোটা বিষয়টি জানান । তারপরেই পুলিশ নড়েচড়ে বসে৷ অবশেষে একজনকে গ্রেফতার করতে তারা সক্ষম হয় ।

জানা গিয়েছে যে জিষ্ণু নাথ কয়েক বছর আগে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করে বিদেশি কোম্পানিতে চাকরি নিয়ে পাড়ি দেন আমেরিকায় । ফিরে এসে বাড়ি পুরনো বাড়ি সংস্কার করতে এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়ে তিনি রীতিমতো হতবাক ৷

যদিও স্থানীয় একটি সূত্রের খবর, এই 'ভাইলো' ওরফে খোকন দক্ষিণ কলকাতার এক প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতার অত্যন্ত কাছের মানুষ । ওই এলাকায় ইমারতি ব্যবসা সেই সামলান । প্রশ্ন উঠছে, রাজনৈতিক প্রভাবের জন্যই কি ‘ভাইলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইতস্তত করছে পুলিশ ?

আরও পড়ুন:

  1. বাড়ি সংস্কারের কাজ না দেওয়ায় প্রবাসী বাঙালির নাক ফাটালেন দাপুটে প্রমোটার
  2. সার্ভিস রিভলভার থেকে গুলি চালিয়ে ফের আত্মঘাতী কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল
  3. কমোডে ঢোকানো মুখ, নিজাম প্যালেস থেকে উদ্ধার কলকাতা পুলিশের কর্মীর দেহ
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.