300 আসনে লড়লেও গোটা দেশে কংগ্রেস 40 আসন পাবে কি না সন্দেহ: মমতা

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 2, 2024, 7:31 PM IST

Etv Bharat

Mamata Banerjee Slams Congress: লোকসভা নির্বাচনের আগে 100 দিনের কাজ-সহ কেন্দ্রীয় বঞ্চনাকে হাতিয়ার করে ময়দানে নেমেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । শুক্রবার থেকে 48 ঘন্টার ধরনায় বসেছেন তিনি ৷ সেখান থেকেই কংগ্রেসকে কড়া আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেত্রী । রাহুল গান্ধিকেও কটাক্ষ করেছেন তিনি ।

কলকাতা, 2 ফেব্রুয়ারি: এখনও লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা না হলেও দেশের প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল তাদের মতো করে নির্বাচনী প্রচারে নেমে গিয়েছে । এই অবস্থায় পিছিয়ে নেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসও । লোকসভা নির্বাচনের আগে 100 দিনের কাজ-সহ কেন্দ্রীয় বঞ্চনাকে হাতিয়ার করে ময়দানে নেমেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । শুক্রবার থেকে 48 ঘণ্টার ধরনা কর্মসূচি শুরু করেছেন তিনি । সেখান থেকেই জোট বন্ধু কংগ্রেসকে কড়া আক্রমণ করলেন মমতা । শুধু কংগ্রেসকে আক্রমণ করেই থেমে থাকেননি তিনি, রাহুলকে নিয়েও এ দিন তিনি তীব্র কটাক্ষ করলেন । একইসঙ্গে মমতার হুংকার, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস 40টি আসনও পাবে কি না সন্দেহ ।

এ দিন রেড রোড থেকে মমতা বলেন, "কংগ্রেসকে আমরা বলেছিলাম 300 আসনে একা লড়ো । আমরা সবাই মদত করব । আর 243টি আসন রিজিওনাল পার্টিগুলিকে দাও । যারা যেখানে শক্তিশালী তারা সেখানে লড়াই করুক । এখানে তুমি মাতব্বরি করবে না । এই অবস্থায় প্রথমেই চলে এল বাংলায় । ভাবলো এখানে মুসলিমদের একটু সুড়সুড়ি দিই । অতএব হিন্দুদের সুড়সুড়ি দিচ্ছে বিজেপি । কংগ্রেস-সিপিএম দিচ্ছে মুসলমানদের । ও করবে হিন্দু আর ও করবে মুসলিম । আর আমরা হিন্দু-মুসলিম-শিখ হয়েও আমরা সবাই বাদ ! এটা হতে পারে না ।"

এ দিন মমতা বলেন, "বিজেপির সঙ্গে কেউ যদি লড়তে পারে সেটা পারে বাংলা, সেটা পারে তৃণমূল । আমরাই পারি আঞ্চলিক দলগুলিকে সব এক জায়গায় করতে । কংগ্রেস তুমি তো একা পারবে না । সবচেয়ে বড় কথা সারা ভারতে 300 আসনে লড়েও তুমি 40টা আসন পাবে কি না আমি জানি না । আজকে তোমাদের এত অহংকার । আমি তো বলেছিলাম দুটি আসন আমি তোমাদের দেব । ওই আসনে তোমাদের জিতিয়েও আনব । তোমরাই বললে হবে না । তবে কটা চাই ? 42টা ! তাহলে 42টাই নিয়ে নাও । আমরা কংগ্রেসের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছি । তারপরে আমার সঙ্গে কংগ্রেসের কোনও কথা হয়নি ।"

এ দিন রাহুলের ন্যায় যাত্রা নিয়েও আক্রমণ শানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী । ন্যায় যাত্রা নিয়ে মমতা বলেন, "বাংলায় প্রোগ্রাম করতে এসেছে । আমরা নাকি ইন্ডিয়া জোট । একবার ইনফরমেশন তো দেবে, অমুক দিন থেকে প্রোগ্রাম করতে যাচ্ছি বাংলায় । আর তো কিছু চাইছি না । আমাকে কেউ তো বলেনি । প্রশাসনের মাধ্যমে শুনেছি । ডেরেককে ফোন করে বলেছে আমাদের গাড়িটা পাস করে দাও । আমাকে একবারের জন্যও জানানো হয়নি ।" মমতার কটাক্ষ, "বাংলায় না এসে, ইউপি গেলে না কেন ! বুকের পাটা থাকলে দেখতাম ইউপিতে গিয়ে বিজেপিকে হারিয়ে এসো । বেনারস এবং রাজস্থানে গিয়ে হারিয়ে এসো ।"

এ দিন মমতা প্রশ্ন তুলেছেন, "মণিপুরে যখন আগুন জ্বলছিল তখন কোথায় ছিলে তোমরা । আমি নিজে সেখানে যেতে চেয়েছিলাম । কিন্তু ওরা অনুমতি দেয়নি । আমি প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছি । মণিপুরে 200 চার্চ পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে । এখন বসন্তের কোকিলদের দেখছি সেখানে ফটোশুট করছে ।"

এ দিন নাম না করে রাহুল গান্ধিকেও নিশানা করেছেন মমতা । তিনি বলেন, "এখন নতুন ধরনের ফটোশুট দেখছি । যারা কখনও চায়ের দোকানে বসেনি, চা কীভাবে বানাতে হয় জানেন না, বাচ্চাদের কখনও আদর করেননি, শিশু বলতে কী তা বোঝেই না, বিড়ি বাঁধতে জানে না, বিড়ির বদলে অন্য কিছু হয়তো খায় । তারাই এখন ক্যামেরার সামনে এ সব করছে ।" মমতা এ দিন রাহুলকে বসন্তের কোকিলের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, "ভোট এসেছে বসন্তের কোকিলেরা চলে এসেছে ।"

আরও পড়ুন

মুখ্যমন্ত্রীর ধরনা মঞ্চের বিপরীতে বসার অনুমতি চেয়ে সেনাকে চিঠি সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের

ধরনামঞ্চ থেকেই প্রশাসনিক কাজকর্ম, আম জনতার ভোগান্তি চান না মমতা

সিএজি রিপোর্টে সব মিথ্যা ! মোদিকে চিঠি মমতার

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.