ETV Bharat / state

'অর্ধেকটা জানতাম, ভুল করেছি'; দেবের কাছে ক্ষমা চাইলেন মদন - Madan Mitra apologises

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Jun 12, 2024, 11:05 PM IST

Madan Mitra: সোহম কাণ্ডে দেবের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন মদন মিত্র ৷ উত্তমকুমার, সৌমিত্র প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতো পরবর্তী বাংলা সিনেমা জগতে দেব গুরুত্বপূর্ণ অভিনেতা বলেও দাবি করেন তিনি ।

Madan Mitra
মদন মিত্র (ফাইল ছবি)

কলকাতা, 12 জুন: নিউটাউনে হোটেল মালিককে মারধরকাণ্ডে অভিযুক্ত সোহমকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল দলের অন্দরে। অভিনেতা ও ঘাটালের সাংসদ দেবও ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছিলেন ৷ সহকর্মী-অভিনেতা সোহমকে তীব্র কটাক্ষও করেন ৷ এরপরই দেবকে পালটা কটাক্ষ করেছিলেন কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র। বুধবার তাঁর গলাতেই শোনা গেল ভিন্ন সুর । এদিন বিধায়ক বলেন, "দেব যা বলেছে ঠিক করেছে। আমি অর্ধেকটা জানতাম। আমি দুঃখিত দেব পুরোটা না-জেনে বলেছি।" প্রকাশ্যেই এভাবে দলের তরুণ সাংসদ দেবের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করলেন মদন মিত্র ।

দেবের কাছে ক্ষমা চাইলেন মদন মিত্র (ইটিভি ভারত)

বুধবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিধায়ক মদন মিত্র বলেন, "আমি অর্ধেক জানতাম ঘটনাটা। এখন পুরোটা জেনেছি ৷ সোহম যেটা করেছে সেটা ঠিক নয়। প্রত্যেকের সংযত থাকা দরকার। মতিভ্রম হল কেন এমন বুঝতে পারছি না। ও এমন ছেলে নয়।" পাশপাশি তিনি আরও উল্লেখ করেন, "বাংলা সিনেমা জগতের তারকা উত্তমকুমার, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতো পরবর্তী বাংলা সিনেমা জগতে দেব গুরুত্বপূর্ণ অভিনেতা । আমি ওর বড় সমর্থক। রোজকার রাজনীতিতে ঢুকলে ওর যেমন সিনেমার ক্ষতি তেমন আমাদেরও রাজনীতির ক্ষতি।"

সম্প্রতি নিউটাউনে একটি রেস্তোরাঁয় শুটিং করতে গিয়ে বিধায়ক ও অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী গণ্ডগোল জড়িয়ে পড়েছিলেন। হোটেল মালিককে মারধর করার ঘটনাও সিসিটিভি ফুটেজে সামনে আসে। এরপরেই অভিনেতা ও সাংসদ দেব এই কাণ্ডের বিরুদ্ধে সরব হন। তিনি গোটা ঘটনায় রীতিমত সোহমের ব্যবহারের তীব্র নিন্দা করেন। এরপরেই সোহমের পাশে দাঁড়াতে দেবকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা ও বিধায়ক মদন মিত্র। সোহম অন্যায় করেছে তাও জানান বিধায়ক মদন মিত্র ৷

সোহম-কাণ্ডে জল গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। দুই পক্ষ পালটা অভিযোগ করেছে থানায় । তবে দলের মধ্যেই অনেকেই অভিযুক্ত বিধায়কের পক্ষে ও বিপক্ষে দাঁড়িয়েছেন । কয়েকদিন আগেই দিন দেবের উদ্দেশ্যে বিধায়ক বলেছিলেন, সোহমকে বলার জন্য দল আছে, কোর কমিটি আছে, বিধানসভার কমিটি আছে। দেব সিনেমায় মন দিক। রাজনীতি না আনা ভালো।"

কলকাতা, 12 জুন: নিউটাউনে হোটেল মালিককে মারধরকাণ্ডে অভিযুক্ত সোহমকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল দলের অন্দরে। অভিনেতা ও ঘাটালের সাংসদ দেবও ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছিলেন ৷ সহকর্মী-অভিনেতা সোহমকে তীব্র কটাক্ষও করেন ৷ এরপরই দেবকে পালটা কটাক্ষ করেছিলেন কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র। বুধবার তাঁর গলাতেই শোনা গেল ভিন্ন সুর । এদিন বিধায়ক বলেন, "দেব যা বলেছে ঠিক করেছে। আমি অর্ধেকটা জানতাম। আমি দুঃখিত দেব পুরোটা না-জেনে বলেছি।" প্রকাশ্যেই এভাবে দলের তরুণ সাংসদ দেবের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করলেন মদন মিত্র ।

দেবের কাছে ক্ষমা চাইলেন মদন মিত্র (ইটিভি ভারত)

বুধবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিধায়ক মদন মিত্র বলেন, "আমি অর্ধেক জানতাম ঘটনাটা। এখন পুরোটা জেনেছি ৷ সোহম যেটা করেছে সেটা ঠিক নয়। প্রত্যেকের সংযত থাকা দরকার। মতিভ্রম হল কেন এমন বুঝতে পারছি না। ও এমন ছেলে নয়।" পাশপাশি তিনি আরও উল্লেখ করেন, "বাংলা সিনেমা জগতের তারকা উত্তমকুমার, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতো পরবর্তী বাংলা সিনেমা জগতে দেব গুরুত্বপূর্ণ অভিনেতা । আমি ওর বড় সমর্থক। রোজকার রাজনীতিতে ঢুকলে ওর যেমন সিনেমার ক্ষতি তেমন আমাদেরও রাজনীতির ক্ষতি।"

সম্প্রতি নিউটাউনে একটি রেস্তোরাঁয় শুটিং করতে গিয়ে বিধায়ক ও অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী গণ্ডগোল জড়িয়ে পড়েছিলেন। হোটেল মালিককে মারধর করার ঘটনাও সিসিটিভি ফুটেজে সামনে আসে। এরপরেই অভিনেতা ও সাংসদ দেব এই কাণ্ডের বিরুদ্ধে সরব হন। তিনি গোটা ঘটনায় রীতিমত সোহমের ব্যবহারের তীব্র নিন্দা করেন। এরপরেই সোহমের পাশে দাঁড়াতে দেবকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা ও বিধায়ক মদন মিত্র। সোহম অন্যায় করেছে তাও জানান বিধায়ক মদন মিত্র ৷

সোহম-কাণ্ডে জল গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। দুই পক্ষ পালটা অভিযোগ করেছে থানায় । তবে দলের মধ্যেই অনেকেই অভিযুক্ত বিধায়কের পক্ষে ও বিপক্ষে দাঁড়িয়েছেন । কয়েকদিন আগেই দিন দেবের উদ্দেশ্যে বিধায়ক বলেছিলেন, সোহমকে বলার জন্য দল আছে, কোর কমিটি আছে, বিধানসভার কমিটি আছে। দেব সিনেমায় মন দিক। রাজনীতি না আনা ভালো।"

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.