অভিষেকের লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের আরও সম্পত্তির হদিশ মিলেছে, হাইকোর্টে দাবি ইডির

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 6, 2024, 7:32 PM IST

ETV BHARAT

Calcutta High Court: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোম্পানি লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের আরও সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে ইডি ৷ কলকাতা হাইকোর্টে আজ এ কথা জানিয়েছেন ইডির আইনজীবী ৷

কলকাতা, 6 ফেব্রুয়ারি: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোম্পানি লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের আরও সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট । মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে এমনই দাবি করেছেন ইডির আইনজীবী ।

এর আগে, তাঁরা জানিয়েছিলেন যে, লিপস অ্যান্ড বাউন্ডস কোম্পানির সাড়ে সাত কোটি টাকার সম্পত্তির হদিশ ইডি পেয়েছে ৷ এ বার নতুন করে আরও সম্পত্তির তথ্য তাঁদের হাতে এসেছে বলে হাইকোর্টে দাবি করেন ইডির আইনজীবী । খুবই শীঘ্রই সেই রিপোর্ট তাঁরা আদালতকে জানাতে পারবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি । তিনি জানান, তাঁরা প্রাথমিক ভাবে যে তথ্য পেয়েছেন, তা খতিয়ে দেখতে দিল্লিতে পাঠানো হয়েছে ৷

এই তথ্য জানার পরই বিচারপতি অমৃতা সিনহা তৃণমূল সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোম্পানির সম্পত্তি সংক্রান্ত ও নিয়োগ দুর্নীতির তদন্ত সংক্রান্ত অগ্রগতির রিপোর্ট চেয়েছেন সিবিআই ও ইডির কাছে । একইসঙ্গে চাকরি থেকে বঞ্চিত মামলাকারীদেরকে তাঁদের বক্তব্য জানিয়ে হলফনামা দিতেও নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি । চাকরিপ্রার্থীদের কাছে থাকা নথি তাঁদের আদালতে হলফনামা দিয়ে জানাতে বলা হয়েছে । আগামী 12 মার্চ ফের এই মামলার শুনানি হবে ৷

ইডির আইনজীবী ধীরজ ত্রিবেদী এ দিন বলেন, "আমরা লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের আরও সম্পত্তি চিহ্নিত করেছি । আমরা আরও বেশি সম্পত্তির খোঁজ পেয়েছি । সেগুলো অ্যাট্যাচ করার প্রক্রিয়া চলছে ।" এ কথা শোনার পর বিচারপতি সিনহা বলেন, "আপনারা আর কত সময় নেবেন ? 2019 সালে প্রথম মামলা দায়ের হয়েছিল । এখনও কত সময় নেবেন ? তদন্তে গতি আনুন ।"

ইডির তরফে এ দিন জানানো হয়, তারা চরম বাধার সম্মুখীন হচ্ছে । তার মধ্যে দিয়েই তাদের তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যেতে হচ্ছে । ইডি জানিয়েছে যে, তারা যে আরও কিছু সম্পত্তি চিহ্নিত করতে পেরেছে, তা দিল্লিতে পাঠানো হয়েছে । পরবর্তী শুনানিতে তারা আশা করছে যে, কিছু রিপোর্ট আদালতে দিতে পারবে ৷

উল্লেখ্য, নিয়োগ দুর্নীতিতে কুন্তল ঘোষের চিঠি সামনে আসার পর বিচারপতি সিনহা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পত্তির খতিয়ান চেয়েছিলেন এবং সিবিআই ও ইডিকে গুরুত্ব দিয়ে এই বিষয়ে তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন । নিয়োগ দুর্নীতির কোনও টাকা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোম্পানিতে বিনিয়োগ করা হয়েছে কি না, তা ভালো করে তদন্ত করতে নির্দশ দিয়েছিলেন বিচারপতি সিনহা । কারণ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পত্তির খতিয়ান নিতে গিয়ে দেখা যায়, 2014 সালের পর থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পত্তি লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে ।

আরও পড়ুন:

  1. বাপুজির প্রয়াণ দিবসে একশো দিনের কর্মীদের হয়ে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার বার্তা অভিষেকের
  2. সন্দেশখালির ঘটনা অনভিপ্রেত, না হলেই ভালো হত: অভিষেক
  3. জোট ভেস্তে যাওয়ায় অধীরকেই দায়ী করলেন অভিষেক, 'ট্রোজান হর্স' বলে কটাক্ষ
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.