শাহজাহানের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ নেই ইডির হাতে, আদালতে দাবি আইনজীবীর

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 3, 2024, 7:59 PM IST

Etv Bharat

ED does not have evidence against Sheikh Shahjahan: শাহজাহানের আইনজীবী আদালতকে জানান, রেশন দুর্নীতি নিয়ে ইডি'র এফআইআর বা চার্জশিটে নাম নেই তাঁর। কিন্তু শাহজাহানের বাড়িতে তল্লাশিতে গিয়ে তাঁকে হাজিরার নোটিশ দিয়ে এসেছিল ইডি।

কলকাতা, 3 ফেব্রুয়ারি: শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত তথ্য-প্রমাণ নেই কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ইডি'র হাতে। সেই জন্য তাঁকে গ্রেফতার করতে পারছে না তারা ৷ কলকাতার নগর দায়রা আদালতে এমনটাই দাবি শেখ শাহজাহানের আইনজীবীর। সমাজের চোখে খারাপ বলে প্রতিপন্ন করে তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও দাবি আইনজীবীর। শনিবার নগর দায়রা আদালতে শাহজাহানের আগাম জামিনের আবেদন সংক্রান্ত মামলায় তাঁর আইনজীবী দাবি করেছেন, শাহজাহানের বিরুদ্ধে যথেষ্ট তথ্য-প্রমাণ নেই ইডি'র হাতে। তা না হলে, তাঁকে আগেই গ্রেফতার করত।

শাহজাহানের বিরুদ্ধে লুক-আউট নোটিশ জারি করেছে ইডি। তার জন্য নগর দায়রা আদালতে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছিলেন শাহজাহান। সেই সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে এদিন তাঁর পক্ষে আইনজীবী ইডি'র বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে বলেন, "রেশন দূর্নীতির তদন্ত করতে গিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কাছ থেকে যে চিঠি ইডি পেয়েছিল তাতে শাহজাহানের নাম ছিল বলে দাবি করা হয়েছে। যদি তাই সত্য হয় তাহলে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে ডাকেনি কেন ?"

শাহজাহানের আইনজীবীর আরও দাবি, "5 জানুয়ারি প্রথম শাহজাহান শেখের বাড়িতে তল্লাশি চালাতে গিয়েছিল ইডি। সেদিন তারা আক্রান্ত হয় বলে অভিযোগ। তারপর আরও একবার তাঁর বাড়িতে গিয়েছিল ইডি। কিন্তু তাঁকে কোনও সমন পাঠানো হয়নি। শাহজাহানের বিরুদ্ধে ইডি'র হাতে যদি পর্যাপ্ত তথ্য প্রমান থাকতো তাহলে তাঁকে সমন না পাঠিয়ে তাঁর বাড়িতে নোটিশ সাঁটিয়ে দিয়ে আসত ! কিন্তু শেষমেশ তাঁর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করা হয়।"

শাহজাহানের আইনজীবী আদালতকে আরও জানিয়েছেন, রেশন দুর্নীতি নিয়ে ইডি'র এফআইআর বা চার্জশিটে নাম নেই তাঁর। কিন্তু শাহজাহানের বাড়িতে তল্লাশিতে গিয়ে তাঁকে হাজিরার নোটিশ দিয়ে এসেছিল ইডি। এতে বলা যায় তাঁকে গ্রেফতার করতে হয়তো যাননি ইডি আধিকারিকরা। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করা হয়েছে। ফলে গ্রেফতারির সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

আইনজীবী আরও জানিয়েছেন, 16 ডিসেম্বর জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কাছ থেকে চিঠি উদ্ধার করে ইডি। 19 ডিসেম্বর তাঁর বয়ান নেওয়া হয়। তারপরই 5 জানুয়ারি শাহজাহান শেখের বাড়িতে তল্লাশিতে যায় ইডি। যদি পর্যাপ্ত তথ্য প্রমান থাকতো তাহলে শাহজাহানকে এর মাঝে ডেকে তাঁর বয়ান কেন নেয়নি ইডি ? আসলে শাহজাহান এলাকার একজন জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা তাই তাঁকে সাধারণ মানুষের চোখে খারাপ প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চলছে। পিএমএলএ (আর্থিক তছরূপ) মামলার 17 ধারায় অভিযোগ দায়ের করার মত তথ্য নেই। তাই মিথ্যা অভিযোগ সাজানো হচ্ছে বলেও দাবি করেছেন তাঁর আইনজীবী। উল্লেখ্য, শাহজাহান প্রথম বার হাজিরা এড়ানোর পর ফের তাকে 7 ফেব্রুয়ারি সল্টলেকের ইডি দফতরে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা। নগর দায়রা আদালতে আগামী শুনানিতে ইডি তাদের বক্তব্য জানাবে। আগামী সোমবার ফের শুনানি এই মামলার।

আরও পড়ুন

আধাসেনায় নিয়োগ নিয়ে নথি জালের মামলায় বাংলায় আটটি স্থানে সিবিআই হানা

নিজে 'পিকচারে' আসতেন না, নিয়োগ দুর্নীতিতে পিছন থেকে কলকাঠি পার্থর; দাবি সিবিআইয়ের

গেরুয়া রং ব্যবহার করে দলতন্ত্র কায়েমের চেষ্টা চলছে, বিজেপিকে আক্রমণ কীর্তি আজাদের

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.