ETV Bharat / state

ধেয়ে আসছে রেমাল ! বাংলার থেকে কত দূরে রয়েছে এই ঘূর্ণিঝড় ? - Cyclone Remal update

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : May 26, 2024, 9:57 PM IST

Cyclone Remal Update: গতি বাড়িয়ে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ৷ শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, ক্যানিং থেকে 110 কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে এই ঘূর্ণিঝড় ৷ রবিবার রাতে আছড়ে পড়বে স্থলভাগে ৷ ল্যান্ডফলের সময় এর গতিবেগ থাকবে 135 কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় । রবিবার বিকেল পাঁচটার পর থেকে রেমাল-এর সরাসরি প্রভাব পড়ছে বাংলায় । ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে ।

Cyclone Remal
ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল (ইটিভি ভারত)

কলকাতা, 26 মে: শক্তি এবং গতি বাড়িয়ে স্থলভাগের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ! আছড়ে পড়ার আগে উপকূলবর্তী জেলা, কলকাতা এবং তার সংলগ্ন অঞ্চলের আকাশ সকাল থেকেই মেঘলা রয়েছে । দফায় দফায় বৃষ্টি হচ্ছে এবং সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বইছে । পূর্বাভাস মতোই রবিবার রাত 11টা থেকে রাত 1টার সময় ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের খেপুপাড়া এবং পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপের মাঝামাঝি অঞ্চলে আছড়ে পড়বে । আছড়ে পড়ার সময় হাওয়ার গতিবেগ হবে ঘণ্টায় 95 কিলোমিটার থেকে 110 কিলোমিটার ৷ দমকা হাওয়ার বেগ থাকতে পারে 135 কিলোমিটার পর্যন্ত ।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত (ইটিভি ভারত)

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, অতি শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড় উত্তর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে । বেলা আড়াইটের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, সকাল সাড়ে এগারোটায় তার যে অবস্থান ছিল, এখন সেই অবস্থান বদলেছে । পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপের 160 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে রয়েছে ৷ ক্যানিং থেকে 110 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল । বাংলাদেশের খেপুপাড়ার 180 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে ও মংলার 220 কিলোমিটার দক্ষিণে রয়েছে ।

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ! চূড়ান্ত তৎপরতা পৌরনিগমে, ঘুরে দেখল ইটিভি ভারত

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত বলেন, "তীব্র ঘূর্ণিঝড় উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে । সরাসরি উত্তর অভিমুখে এসে সাগরদ্বীপ ও বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝে সুন্দরবন এলাকায় স্থলভাগে আছড়ে পড়বে । আরও নির্দিষ্ট করে বললে, বাংলাদেশের মংলা এলাকায় এর স্থলভাগে প্রবেশের পথ । মংলা উপকূলের দক্ষিণ দিক দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করতে পারে । রবিবার মাঝরাতে ল্যান্ডফলের সময় এর গতিবেগ থাকবে 135 কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় । রাত 11টা থেকে রাত 1টার মধ্যে ল্যান্ডফলের সম্ভাবনা রয়েছে । রবিবার দুপুর থেকে সোমবার দুপুর পর্যন্ত দুর্যোগ থাকবে । বিকেল পাঁচটার পর থেকে রেমাল-এর প্রভাব সরাসরি পড়বে বাংলায় ।"

মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে ইতিমধ্যেই নিষেধ করা হয়েছে এবং তা জারি রয়েছে । কাঁচা বাড়ি ও লোহার স্ট্রাকচার ইলেকট্রিকের পোল ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে । পরিবহণ ও অন্যান্য যান ব্যবস্থা বিঘ্নিত হতে পারে । জলোচ্ছ্বাসে সমুদ্রের নোনা জল ঢুকে পড়তে পারে মিষ্টি জলের পুকুর ও চাষের জমিতে । চাষ ও হটিকালচার শস্যের ক্ষতি হতে পারে । উত্তর ও দক্ষিণ 24 পরগনা জেলায় 200 মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে । 100 থেকে 120 কিলোমিটার গতিবেগে দমকা বাতাস বইতে পারে ।

আরও পড়ুন: প্রস্তুত বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, ল্য়ান্ডফলের আগে সাগরের পরিস্থিতি ইটিভি ভারতের ক্যামেরায়

কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া ও হুগলি জেলায় অতিভারী বৃষ্টি হবে । 80 থেকে 90 কিলোমিটার গতিবেগে দমকা বাতাস সঙ্গে 200 মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে । ঝড় বৃষ্টি হবে নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান ও বীরভূম জেলাতেও । সোমবার বিকেলের পর আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে কলকাতাতে । ঝড়-বৃষ্টির পরিমাণ কমবে । মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হবে । নদিয়া, মুর্শিদাবাদ ও মালদাতে সোমবার বেশি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে । উত্তরবঙ্গে মঙ্গলবার বৃষ্টি ও ঝড়ের সম্ভাবনা বেশি । উত্তর বঙ্গোপসাগরে তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের অবস্থান ।

তীব্র ঘূর্ণিঝড় রেমল-এর সাইক্লোন সেন্টারের আবর্তের বর্তমান গতি 95 থেকে 105 কিলোমিটার । সর্বোচ্চ 115 কিলোমিটার । অতি শক্তিশালী ঝড় হিসাবেই উত্তরমুখী হয়ে এগোচ্ছে রেমল । এই মুহূর্তে সমুদ্রে তার নিজস্ব গতিবেগ 110 কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় । বাংলাদেশের মংলাতে ল্যান্ডফল হবে ঘূর্ণিঝড় রেমলের । ভারতের মৌসম ভবন জানিয়ে দিয়েছে, বাংলাদেশের মংলার কাছাকাছি রবিবার মাঝরাতে আছড়ে পড়বে এই ঘূর্ণিঝড় । মংলা থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে এর ল্যান্ডফলের প্রবল সম্ভাবনা । সেই সময় তার গতিবেগ থাকবে প্রতি ঘণ্টায় 110 থেকে সর্বোচ্চ 135 কিলোমিটার ।

আরও পড়ুন:রেমালের প্রভাবে দিঘায় উত্তাল সমুদ্র, বাড়ল নজরদারি

কলকাতা, 26 মে: শক্তি এবং গতি বাড়িয়ে স্থলভাগের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ! আছড়ে পড়ার আগে উপকূলবর্তী জেলা, কলকাতা এবং তার সংলগ্ন অঞ্চলের আকাশ সকাল থেকেই মেঘলা রয়েছে । দফায় দফায় বৃষ্টি হচ্ছে এবং সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বইছে । পূর্বাভাস মতোই রবিবার রাত 11টা থেকে রাত 1টার সময় ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের খেপুপাড়া এবং পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপের মাঝামাঝি অঞ্চলে আছড়ে পড়বে । আছড়ে পড়ার সময় হাওয়ার গতিবেগ হবে ঘণ্টায় 95 কিলোমিটার থেকে 110 কিলোমিটার ৷ দমকা হাওয়ার বেগ থাকতে পারে 135 কিলোমিটার পর্যন্ত ।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত (ইটিভি ভারত)

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, অতি শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড় উত্তর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে । বেলা আড়াইটের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, সকাল সাড়ে এগারোটায় তার যে অবস্থান ছিল, এখন সেই অবস্থান বদলেছে । পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপের 160 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে রয়েছে ৷ ক্যানিং থেকে 110 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল । বাংলাদেশের খেপুপাড়ার 180 কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে ও মংলার 220 কিলোমিটার দক্ষিণে রয়েছে ।

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ! চূড়ান্ত তৎপরতা পৌরনিগমে, ঘুরে দেখল ইটিভি ভারত

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত বলেন, "তীব্র ঘূর্ণিঝড় উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে । সরাসরি উত্তর অভিমুখে এসে সাগরদ্বীপ ও বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝে সুন্দরবন এলাকায় স্থলভাগে আছড়ে পড়বে । আরও নির্দিষ্ট করে বললে, বাংলাদেশের মংলা এলাকায় এর স্থলভাগে প্রবেশের পথ । মংলা উপকূলের দক্ষিণ দিক দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করতে পারে । রবিবার মাঝরাতে ল্যান্ডফলের সময় এর গতিবেগ থাকবে 135 কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় । রাত 11টা থেকে রাত 1টার মধ্যে ল্যান্ডফলের সম্ভাবনা রয়েছে । রবিবার দুপুর থেকে সোমবার দুপুর পর্যন্ত দুর্যোগ থাকবে । বিকেল পাঁচটার পর থেকে রেমাল-এর প্রভাব সরাসরি পড়বে বাংলায় ।"

মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে ইতিমধ্যেই নিষেধ করা হয়েছে এবং তা জারি রয়েছে । কাঁচা বাড়ি ও লোহার স্ট্রাকচার ইলেকট্রিকের পোল ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে । পরিবহণ ও অন্যান্য যান ব্যবস্থা বিঘ্নিত হতে পারে । জলোচ্ছ্বাসে সমুদ্রের নোনা জল ঢুকে পড়তে পারে মিষ্টি জলের পুকুর ও চাষের জমিতে । চাষ ও হটিকালচার শস্যের ক্ষতি হতে পারে । উত্তর ও দক্ষিণ 24 পরগনা জেলায় 200 মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে । 100 থেকে 120 কিলোমিটার গতিবেগে দমকা বাতাস বইতে পারে ।

আরও পড়ুন: প্রস্তুত বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, ল্য়ান্ডফলের আগে সাগরের পরিস্থিতি ইটিভি ভারতের ক্যামেরায়

কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া ও হুগলি জেলায় অতিভারী বৃষ্টি হবে । 80 থেকে 90 কিলোমিটার গতিবেগে দমকা বাতাস সঙ্গে 200 মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে । ঝড় বৃষ্টি হবে নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান ও বীরভূম জেলাতেও । সোমবার বিকেলের পর আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে কলকাতাতে । ঝড়-বৃষ্টির পরিমাণ কমবে । মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হবে । নদিয়া, মুর্শিদাবাদ ও মালদাতে সোমবার বেশি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে । উত্তরবঙ্গে মঙ্গলবার বৃষ্টি ও ঝড়ের সম্ভাবনা বেশি । উত্তর বঙ্গোপসাগরে তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের অবস্থান ।

তীব্র ঘূর্ণিঝড় রেমল-এর সাইক্লোন সেন্টারের আবর্তের বর্তমান গতি 95 থেকে 105 কিলোমিটার । সর্বোচ্চ 115 কিলোমিটার । অতি শক্তিশালী ঝড় হিসাবেই উত্তরমুখী হয়ে এগোচ্ছে রেমল । এই মুহূর্তে সমুদ্রে তার নিজস্ব গতিবেগ 110 কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় । বাংলাদেশের মংলাতে ল্যান্ডফল হবে ঘূর্ণিঝড় রেমলের । ভারতের মৌসম ভবন জানিয়ে দিয়েছে, বাংলাদেশের মংলার কাছাকাছি রবিবার মাঝরাতে আছড়ে পড়বে এই ঘূর্ণিঝড় । মংলা থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে এর ল্যান্ডফলের প্রবল সম্ভাবনা । সেই সময় তার গতিবেগ থাকবে প্রতি ঘণ্টায় 110 থেকে সর্বোচ্চ 135 কিলোমিটার ।

আরও পড়ুন:রেমালের প্রভাবে দিঘায় উত্তাল সমুদ্র, বাড়ল নজরদারি

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.