'সরকারি সুযোগ-সুবিধা ছেড়ে দিয়ে লড়ুন, বুঝে নেব', দলেরই দুই বিধায়ককে চ্যালেঞ্জ শুভ্রাংশুর

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 31, 2024, 10:31 PM IST

Etv Bharat

Suvranshu Roy challenge two MLAs of TMC: জগদ্দলের বিধায়ক সোমনাথ শ্যাম ও বীজপুরের বিধায়ক সুবোধ অধিকারী ক্রমাগত সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে যাচ্ছেন। একধাপ এগিয়ে মুকুল পুত্র শুভ্রাংশুকেও 'পাল্টিবাজ' নেতা বলে আক্রমণ করা হয়েছে। তার প্রেক্ষিতেই বুধবার এক সাংবাদিক সম্মেলনের ডাক দেন অর্জুন ঘনিষ্ঠ তৃণমূলের এই প্রাক্তন বিধায়ক।

দলের বিধায়কদরে চ্যালেঞ্জ শুভ্রাংশুর

কাঁচরাপাড়া, 31 জানুয়ারি: নাম করে লাগাতার ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংকে আক্রমণ ! বাদ যাননি মুকুল পুত্র তৃণমূল নেতা শুভ্রাংশু রায়ও।তৃণমূলের দুই বিধায়ক সোমনাথ শ‍্যাম এবং সুবোধ অধিকারীর সেই আক্রমণেরই পালটা জবাব দিলেন বীজপুরের প্রাক্তন বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়। কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন জগদ্দল ও বীজপুরের তৃণমূল বিধায়কের দিকে। সাংসদের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, "সরকারের ব্যবস্থাপনায় এঁদের এত বাড়বাড়ন্ত। ক্ষমতা থাকলে সরকারি সুযোগ সুবিধা ছেড়ে দিয়ে রাস্তায় নেমে আমার সঙ্গে লড়াই করে দেখান। সাংসদের সঙ্গে লড়তে হবে না। প্রকাশ্যে চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি ৷" উচ্চ নেতৃত্বের নির্দেশ অমান্য করার পিছনে এঁদের আত্মঅহংকার রয়েছে বলেও মনে করেন শুভ্রাংশু।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরেই জগদ্দলের বিধায়ক সোমনাথ শ্যাম ও বীজপুরের বিধায়ক সুবোধ অধিকারী সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে ক্রমাগত সুর চড়িয়ে যাচ্ছেন। মঙ্গলবারও কাঁচরাপাড়ায় এক রক্তদান শিবিরে যোগ দিয়ে সাংসদ অর্জুন সিংকে 'পাল্টিবাজ' বলে কটাক্ষ করেছেন সোমনাথ এবং সুবোধ, দু'জনেই। এমনকী একধাপ এগিয়ে মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু'র নামও টেনে এনে 'পাল্টিবাজ' নেতাদের সঙ্গেই তুলনা করেছেন। তার প্রেক্ষিতে বুধবার এক সাংবাদিক সম্মেলনের ডাক দেন অর্জুন ঘনিষ্ঠ তৃণমূলের এই প্রাক্তন বিধায়ক।

কার্যত শীতঘুম থেকে উঠে নাম না করে এদিন দলের দুই বিধায়ককে তুলোধনা করেছেন কাঁচরাপাড়া পৌরসভার উপ-পৌরপ্রধান শুভ্রাংশু রায়। তিনি বলেন, "বারবার যারা 2019 সালের প্রসঙ্গ টেনে আনছেন তাঁরা সেই সময় কোন দলে ছিলেন সেটা সকলেই জানে। আমরা কোন সময় বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলাম এবং পরবর্তীতে তাঁরা কোন সময় তৃণমূলে যোগ দিলেন সবটাই জানা সবার। খোঁজ নিলেই আপনারা জানতে পারবেন। আর 2019 সালের লোকসভা ভোটের পর যে তান্ডবের কথা বলা হচ্ছে, সেই তান্ডব সংগঠিত করেছিলেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া ওই সমস্ত নেতারাই ৷" এতদিন যে অস্ত্রে সোমনাথ এবং সুবোধ সাংসদ অর্জুন সিংকে বিদ্ধ করতেন সেই অস্ত্রেই এবার তাঁদের ঘায়েল করতে চেয়েছেন মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়।

এদিকে, ব‍্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংকে দক্ষ সংগঠক অ্যাখা দিয়ে শুভ্রাংশু বলেন, "সাংসদকে এঁরা ভয় পেয়েছেন। ভয় পেয়েছেন বলেই তাঁকে আক্রমণ করছেন। আতঙ্ক তো অবশ্যই রয়েছে। তাঁরা ভাবছেন, সাংসদ যদি আগের মতো ফর্মে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ান আর উন্নয়নের কাজ করেন তাহলে তাঁদের গুরুত্ব কমে যেতে পারে। যেভাবে দুই বিধায়ক কাঁদা ছোঁড়াছুঁড়ি করছেন আখেরে তাতে জবাবদিহি করতে হচ্ছে সাধারণ তৃণমূল কর্মীদেরই। দল থাকলে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব থাকে। তবে, দলের ভিতরে থেকেই সবকিছু বলা উচিত। বাইরে অথবা প্রকাশ্য মঞ্চে দাঁড়িয়ে নয় ৷" যদিও এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনের জন্য তিনি দলের উচ্চ নেতৃত্বের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন।

অন‍্যদিকে, মুকুল রায়ের শারীরিক অসুস্থতার কথা বলতে গিয়ে এদিন দল সম্পর্কে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন বীজপুরের প্রাক্তন বিধায়ক। তাঁর কথায়, "দল গঠনে যাঁদের অবদান ছিল, তাঁদের কেউই তো এখন তৃণমূলের প্রথম সারিতে নেই। কেন নেই, সেটা যাঁরা দলের ক্ষমতায় রয়েছেন তাঁরাই জানেন। তাঁদের দল থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে নাকি, কাজ করতে পারছে না, সেটা আমি বলতে পারব না। অনেক সময় হয়, ভালো ঘোড়া এলে পুরনো ঘোড়া পিছিয়ে পড়ে ৷" তবে, মুকুলের অসুস্থতার খোঁজখবর মুখ্যমন্ত্রী-সহ দলের পুরনো নেতারা নিলেও নতুনরা মোটেই নেন-না বলেও এদিন ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছেন তৃণমূল নেতা শুভ্রাংশু রায়।

আরও পড়ুন

নিয়মের ব্যতিক্রম, লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নজরদারিতে সিআরপিএফ

গঙ্গার ভাঙন রোধের কাজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কিছু না-বলায় হতাশ মালদাবাসী

পানীয় জল সমস্যার সমাধানে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে অগ্নিমিত্রা

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.