মমতার একা লড়ার ঘোষণার পরও তৃণমূলের সঙ্গে আসন সমঝোতায় আশাবাদী কংগ্রেস

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 1, 2024, 5:31 PM IST

File Photo

Jairam Ramesh: লোকসভা ভোটে কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতা করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তার পরও বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে জোট নিয়ে আশাবাদী কংগ্রেস ৷ বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর থেকে এই কথা জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ ৷

জঙ্গিপুর, 1 ফেব্রুয়ারি: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় একাই লড়াই করার কথা ঘোষণা করে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় ৷ তাঁর ফর্মুলা মেনে নিতে কংগ্রেস রাজি হয়নি বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি ৷ তার পরও এই রাজ্যে কংগ্রেস ও তৃণমূলের মধ্যে আসন সমঝোতা নিয়ে আশাবাদী রাহুল গান্ধির দল ৷

বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের অন্যতম সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ এই নিয়ে বলেন, "একটি জোটে দেওয়া ও নেওয়া চলতেই থাকে । সমস্ত দলকে সন্তুষ্ট করে এমন আসন ভাগাভাগি নিয়ে এই রাজ্যে আমরা ঐকমত্যে পৌঁছতে পারব বলেই আশাবাদী ৷ মমতাজি ‘ইন্ডিয়া’ ব্লকের প্রতি তাঁর দায়বদ্ধতা প্রকাশ করেছেন ৷ তাঁর এই অবস্থানকে আমরা স্বাগত জানাই ।"

কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধি এখন ভারত জোড়ো ন্যায় যাত্রা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে রয়েছেন ৷ সেই যাত্রা বৃহস্পতিবার ছিল মুর্শিদাবাদে ৷ ওই যাত্রার মাঝেই মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে সাংবাদিক বৈঠক করেন জয়রাম রমেশ ৷ সেখানেই তিনি এই কথা বলেন ৷ তাছাড়া আবারও মনে করিয়ে দেন যে 2024 সালের লোকসভা নির্বাচনের প্রধান লক্ষ্য হল কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা ।

যে জেলায় বসে জয়রাম এই কথা বললেন, সেই মুর্শিদাবাদে লোকসভার তিনটি আসন ৷ 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে ওই তিনটি আসনের মধ্যে দু’টিতে জেতে তৃণমূল ৷ আর একটি বহরমপুরে জয়ী হন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী ৷ কিন্তু বুধবার মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে তিনি কংগ্রেসকে এই রাজ্য়ে দু’টি আসন ছাড়তে রাজি হয়েছিলেন (এর মধ্যে বহরমপুর নেই) ৷ মালদার দু’টো লোকসভা আসন (একটিতে 2019 সালে কংগ্রেসই জিতেছিল) দিতে চেয়েছিলেন ৷ কংগ্রেস রাজি না হওয়ায় তিনি লোকসভা নির্বাচনে একাই লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ৷

মমতার এই বক্তব্য সম্বন্ধে অবগত জয়রামও ৷ তিনি এই নিয়ে বলেন, "আমি তাঁর (মমতা) বিবৃতি সম্পর্কে শুনেছি ৷ তবে এটি তাঁর মতামতকে প্রতিফলিত করে, জোটের ঐক্যমত্য নয় । আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে পরাজিত করার জন্য তৃণমূল ও কংগ্রেস উভয়েরই অভিন্ন লক্ষ্য রয়েছে ।" যদিও মমতা দাবি করেছেন, বাংলায় বিজেপিকে সুবিধা করে দিতে কংগ্রেস ও সিপিএম হাত মিলিয়েছে ৷

অন্যদিকে বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে কোনও জোটে যুক্ত হতে সিপিএম নেতৃত্বের অনিচ্ছার বিষয়ে জয়রাম রমেশ বলেন, "সিপিএম, কংগ্রেস, তৃণমূল ও অন্যান্য দলের প্রতিনিধিরা বিরোধী ব্লকের সমস্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ।" কিন্তু 27 দলের বিরোধীদের জোট ‘ইন্ডিয়া’য় কংগ্রেস, তৃণমূল ও সিপিএম শরিক হলেও বাংলায় কংগ্রেস ও সিপিএম লড়াই করছে তৃণমূল ও বিজেপি উভয়ের বিরুদ্ধে ৷

কিন্তু রাহুল গান্ধির ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত জয়রাম রমেশ বলছেন, "বাংলায় আমাদের লক্ষ্য পরিষ্কার - বিজেপিকে হটিয়ে দেওয়া । বিজেপি গত নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে যে 18টি আসনে জিতেছিল, সেগুলিতে তাদের পরাজয় আমাদের নিশ্চিত করতে হবে ।"

উল্লেখ্য, 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল একাই লড়াই করেছিল ৷ কংগ্রেস ও বামেরা জোট গড়ে লড়াই করে ৷ ভোটের ফল প্রকাশের পর দেখা যায় ৷ বামেদের ফিরতে হয় শূন্য হাতে ৷ কংগ্রেস পেয়েছে দু’টি আসন ৷ আর তৃণমূল জিতেছে 22টি আসনে ৷ বিজেপি অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই জেতে 18টি আসনে ৷

সেবারও ভোটের আগে বিজেপি বিরোধীদের একছাতার তলায় আনার চেষ্টা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় ৷ কিন্তু শেষপর্যন্ত জোট হয়নি ৷ এবারও মমতার উদ্যোগেই মূলত বিরোধীরা এক ছাতার তলায় এসেছে ৷ কিন্তু আসন সমঝোতা হবে কি ?

(পিটিআই ইনপুট-সহ)

আরও পড়ুন:

  1. রাহুলের গাড়ির কাচ ভাঙার প্রভাব পড়বে না বিরোধীদের ‘ইন্ডিয়া’য়, মন্তব্য জয়রাম রমেশের
  2. রাহুলের গাড়ির কাচ ভেঙেছে কাটিহারে, মমতার সুরে বললেন কংগ্রেসের সুপ্রিয়া
  3. মালদার দু’টি আসন দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু কংগ্রেসের অনেক চাই, বললেন মমতা
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.