মুক্ত-সুরক্ষিত-সমৃদ্ধ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ সঙ্গী মালদ্বীপ: আমেরিকা

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 9, 2024, 3:03 PM IST

ETV BHARAT

India Maldives row: দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী বিদেশমন্ত্রী মালদ্বীপকে নিরাপদ ও সমৃদ্ধ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল নিশ্চিত করতে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হিসেবে বর্ণনা করেছেন । মালদ্বীপে সফর করে ডোনাল্ড লু প্রতিরক্ষা সহযোগিতা এবং অর্থনৈতিক বৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা করতে মোহম্মদ মুইজু এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেন ৷

ওয়াশিংটন, 9 ফেব্রুয়ারি: মুক্ত, সুরক্ষিত এবং সমৃদ্ধ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল নিশ্চিত করার মূল অংশীদার মালদ্বীপ ৷ এমনই দাবি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৷ বৃহস্পতিবার তারা বলেছে যে, আমেরিকা দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্রের সঙ্গে সহযোগিতা জোরদার করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ । সম্প্রতি মালদ্বীপের নতুন নেতৃত্ব এবং নাগরিক সমাজের সঙ্গে আলোচনার জন্য সেখানে গিয়েছেন দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী বিদেশমন্ত্রী ডোনাল্ড লু ।

29-31 জানুয়ারি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারির মালদ্বীপ সফর নিয়ে সংবাদসংস্থা পিটিআই স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্রকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, "মুক্ত, উন্মুক্ত, সুরক্ষিত এবং সমৃদ্ধ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার মালদ্বীপ ৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের সঙ্গে সহযোগিতা জোরদার করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ৷"

মালদ্বীপে থাকাকালীন লু মহম্মদ মুইজু এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের সঙ্গে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা, অর্থনৈতিক বৃদ্ধি এবং গণতান্ত্রিক শাসন-সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন । মুখপাত্র জানান, "মালদ্বীপে মার্কিন দূতাবাস প্রতিষ্ঠার অগ্রগতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে, যা আমাদের অংশীদারিত্ব এবং জনগণের মধ্যে সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী করবে ৷" তাঁর কথায়, মালদ্বীপে গণতান্ত্রিক শাসন ও স্বচ্ছতা নিয়ে আলোচনা করতে নাগরিক সমাজের সদস্য এবং উচ্চশিক্ষা কর্মকর্তাদের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন লু ।

এ দিকে, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বা আইএমএফ মালদ্বীপে তার আর্টিকেল IV মিশন শেষ করার পরে বলেছে যে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির মহামারী পরবর্তী বৃদ্ধি শক্তিশালী হয়েছে, সম্প্রতি তা স্বাভাবিকও হয়েছে । 2024 সালে বৃদ্ধি 5.2 শতাংশ অনুমান করা হয়েছে, কারণ পর্যটকদের আগমন আরও বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে । তা সত্ত্বেও, আর্থিক ও বাহ্যিক দুর্বলতা বেড়েছে, জরুরি নীতি সমন্বয়ের আহ্বান জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছে আইএমএফ ৷

পিয়াপর্ন সোদশ্রীবিবুনের নেতৃত্বে আইএমএফ মিশন 23 জানুয়ারি থেকে 6 ফেব্রুয়ারি মালদ্বীপে সফর করে ৷ সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন, দৃষ্টিভঙ্গি এবং 2024 আর্টিকেল IV পরামর্শের পরিপ্রেক্ষিতে দেশের নীতি অগ্রাধিকার নিয়ে আলোচনা করার জন্যই এই সফর ।

আরও পড়ুন:

  1. মোদির উদ্দেশে অবমাননাকর মন্তব্যকে সমর্থন নয়, চাপে মুখে নতিস্বীকার মলদ্বীপ সরকারের
  2. বিদেশমন্ত্রকের তলবে সাউথ ব্লকে মলদ্বীপের রাষ্ট্রদূত
  3. জি20 সম্মেলনের পর কূটনৈতিক চ্যালেঞ্জের মুখে ভারত
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.