আইনি বৈধতা নিয়েই সঙ্গীতজগতে আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্স ব্যবহার করা উচিত, মত রহমানের

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 3, 2024, 4:46 PM IST

A R Rahman

A R Rahman: সম্প্রতি একটি গানে আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্স ব্যবহার করেছেন এআর রহমান ৷ সেখানে তিনি প্রযুক্তির সাহায্যে প্রয়াত দুই শিল্পীর গলা ব্যবহার করেছেন ৷ এই নিয়ে রহমানের বক্তব্য, এই ধরনের কাজ গিমিকের জন্য করা উচিত নয় ৷ আইনি বৈধতা নিয়েই করা উচিত ৷

নয়াদিল্লি, 3 ফেব্রুয়ারি: প্রযুক্তির ব্যবহার কখনও গিমিক করার জন্য করা উচিত নয় ৷ বরং প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েই এই কাজ করা উচিত ৷ এমনটাই মনে করেন কিংবদন্তি সঙ্গীতশিল্পী এআর রহমান ৷ সম্প্রতি একটি গানে বাম্বা বাক্যা ও শাহুল হামিদ নামে প্রয়াত দুই শিল্পীর গলা আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্সের মাধ্যমে ব্যবহার করেছেন ৷ তার পর থেকে এই নিয়ে ‘নানা মুনির নানা মত’ শোনা যাচ্ছে ৷ সেই পরিস্থিতিতে অস্কার জয়ী এই শিল্পীর এই মন্তব্য খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ৷

আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে ব্যবহার করে নানা কাজ চলছে বিশ্বজুড়ে ৷ প্রয়াত মানুষদের কণ্ঠস্বর ফিরিয়ে আনা হচ্ছে এই প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে ৷ ফলে এই নিয়ে বিতর্কও চলছে ৷ অনেকে মনে করছেন, এই প্রযুক্তি ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে ৷ তবে রহমান এই প্রযুক্তির ব্যবহার নিয়ে খুশি ৷ সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া এক ভার্চুয়াল সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, "এর ব্যবহার আপনি তখনই করুন, শুধুমাত্র যখন আপনার সত্যিই এটির প্রয়োজন হয় এবং শুধুমাত্র যখন আপনি এটি করতে পারেন । এটি অর্ধেকভাবে করা উচিত নয় । এটি গিমিক নয়, এর একটি প্রভাব আছে এবং সেই উদ্দেশ্য পূরণ করতে হবে ।"

সুপারস্টার রজনীকান্তের কন্যা ঐশ্বর্য রজনীকান্ত একটি ছবি পরিচালনা করেছেন ৷ যার নাম লাল সেলাম ৷ আগামী 9 ফেব্রুয়ারি ছবিটি মুক্তি পেতে চলেছে ৷ সেই ছবিতে একটি গান রয়েছে ‘তিমিরি ইয়েজুদা’ ৷ সেই গানটিতে আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্সের সাহায্যে বাক্যা ও হামিদের কণ্ঠস্বর ব্যবহার করা হয়েছে ৷ এই নিয়ে রহমানের বক্তব্য, তাঁরা এই নিয়ে আগে প্রয়াত ওই দুই শিল্পীর পরিবারের অনুমতি নিয়েছেন ৷ আইনি ছাড়পত্র নিয়ে এই কাজ করা হয়েছে ৷ এতে কোনও ভুল নেই ৷ তিনি মনে করেন, এই ধরনের কাজে যদি আর্থিক লাভ হয়, তাহলে প্রয়োজনীয় অনুমতি আগে নিয়ে নেওয়া উচিত ৷ উল্লেখ্য, বাক্য়া 2022 সালের সেপ্টেম্বরে মারা যান ৷ মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স ছিল 42 ৷ আর হামিদের মৃত্যু হয় 1998 সালে ৷ তখন তাঁর বয়স ছিল 57 বছর ৷ জীবদ্দশায় তাঁরা কাজ করেছেন এআর রহমানের সঙ্গে ৷

আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্সের অতিরিক্ত ব্যবহার কাজের বাজারে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে বলে অনেকে মনে করছেন ৷ এর জেরে অনেকে কাজ হারাতে পারেন বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন অনেকে ৷ এই বিষয়টি নিয়েও ওয়াকিবহাল এআর রহমান ৷ তিনি এই নিয়ে বলেন, "যেকোনও প্রযুক্তির মানবতার ক্ষতি করা উচিত নয় । এটি কেবল আমাদের কাজের পদ্ধতিকে উন্নত করার কাজে ব্যবহার করতে হবে । এর জেরে কেউ কাজ হারালে সেটা ঠিক হবে না ৷ ভালো ও খারাপ, সব ধরনের মানুষই আছে ৷ ভালো লোকেরা এটা করবে বৈধ উপায়ে ৷ খারাপ লোকেরা সব কিছু এড়িয়ে টাকা রোজগারের কথা ভাববে ৷’’ তাই এই ক্ষেত্রে যাঁরা নেতৃত্ব দেবেন, তাঁদেরই বিষয়টি নিয়ে উদ্যোগ নিতে হবে বলে রহমান মনে করেন ৷

সংবাদসংস্থা - পিটিআই

আরও পড়ুন:

  1. এআর রহমানের গাড়ি আটকালেন বিদেশি অনুরাগী, তারপর যা হল দেখুন ভিডিয়োয়
  2. একসময়ে নিজেকে শেষ করে ফেলতে চেয়েছিলেন অস্কারজয়ী এআর রহমান!
  3. পুনেতে মঞ্চে উঠে রহমানের কনসার্ট থামাল পুলিশ, কেন ?
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.