ETV Bharat / business

ধনকুবেরদের তালিকায় বেজিংকে টপকে পয়লা নম্বরে মায়ানগরী মুম্বই - HARUN GLOBAL RICH LIST 2024

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Mar 27, 2024, 10:07 PM IST

Global Rich List 2024: দেশের আর্থিক রাজধানী হিসাবে পরিচিত মুম্বই ৷ ময়ানগরীতেই এখনও বাস দেশের প্রথম সারির 'বিলিওনেয়ারদের' ৷ বেজিংকে ছাড়িয়ে এশিয়ার পয়লা নম্বর 'শতকোটির' শহর হিসাবে স্থান করে নিয়েছে বাণিজ্যনগরী ৷ সম্প্রতি বেশ কয়েকজন অর্থনীতিবিদদের সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে ৷

Etv Bharat
Etv Bharat

মুম্বই, 27 মার্চ: দেশের বাণিজ্যনগরী হিসাবে পরিচিত মুম্বই ৷ এই মায়ানগরীতে এখনও বিলিয়নিয়রদের বাসস্থানের দিক থেকে প্রথম সারিতে উঠে এসেছে ৷ এই তালিকায় পিছনে পড়ে গিয়েছে বেজিংও ৷ এশিয়ার বিলিয়নেয়ারের সংখ্যায় মুম্বই চিনের রাজধানী বেজিংকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে। হারুন রিসার্চ প্ল্যাটফর্মের 2024 সালের রিপোর্ট অনুসারে, মুম্বইয়ে এশিয়ার সর্বোচ্চ সংখ্যক শতকোটির নাগরিকরা রয়েছেন।

এই সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী বিশ্বের ধনকুবেরদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে মায়ানগরী মুম্বই। 119 জন বিলিয়নেয়ার নিয়ে শীর্ষ স্থানে রয়েছে নিউইয়র্ক । 97 জন বিলিয়নেয়ার নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে লন্ডন । 92 জন বিলিয়নেয়ার নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের মুম্বই । এই তালিকায় চিনের বেজিংকে পেছনে ফেলেছে মুম্বই। বেজিং এখন 91 বিলিয়নেয়ার নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে ৷ 7 বছর পর এশিয়ার বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে মুম্বই ।

কোটিপতির সংখ্যা কত বেড়েছে?

হারুন 2024 দ্বারা প্রকাশিত তথ্য অনুসারে, মুম্বইয়ে এক বছরে 26 জন নতুন বিলিয়নিয়ার উঠে এসেছেন বলে দাবি করা হয়েছে সমীক্ষায় ৷ সবমিলিয়ে আপাতত বেজিংকে (91) ছাপিয়ে মুম্বইয়ের বিলিয়নেয়ারের সংখ্যা 92 ৷ সমীক্ষায় আরও জানিয়েছে, মুম্বইয়ের সমস্ত বিলিয়নেয়ারের মোট সম্পত্তির পরিমাণ 445 বিলিয়ন ডলার, যা গত একবছরে 47 শতাংশ বেড়েছে। সেই তুলনায় বেজিংয়ে ধনকুবেরদের সম্পদের পরিমাণ 265 বিলিয়ন ডলার। বেজিংয়ের বিলিয়নেয়ার জনসংখ্যা 28 শতাংশ কমেছে।

কোন খাতে বৃদ্ধি হয়েছে ?

এই প্রসঙ্গেই অর্থনীতিবিদ প্রকাশ পাঠক বলেন, "মুম্বইয়ে শিল্প ও ব্যবসার খুব ভাল সুযোগ আছে ৷ সেই সঙ্গে সংস্থান রয়েছে। বিদ্যুৎ খাত এবং ফার্মাসিউটিক্যাল সেক্টর মুম্বইয়ের শিল্পবৃদ্ধিতে সাহায্য করেছে। এছাড়াও, শিল্পপতিদের ক্রমবর্ধমান মুনাফা বৃদ্ধির ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। মুম্বইয়ে বিলিয়নেয়ারদের বসবাসের সংখ্যা বৃদ্ধি দেশের অর্থনীতিতে প্রভাব ফলবে বলে মনে করা হচ্ছে ৷

অর্থনৈতিক নীতির প্রভাব -

এই প্রসঙ্গেই অর্থনীতিবিদ রবীন্দ্র বৈদ্যর দাবি, "বিলিওনেয়ারদের তালিকায় মুম্বইয়ের এগিয়ে দেশের অর্থনীতির পক্ষে ইতিবাচক ৷ ভারতের 'মেক ইন ইন্ডিয়া', রফতানি নীতি, ব্যবসায়িক আইনের সংশোধন এবং ভারতে ব্যবসায়ীদের ঝুঁকি নেওয়ার ক্ষমতার ফলে এটি সম্ভব হয়েছে। বিশেষত ব্যবসা-বান্ধব সরকারি নীতিগুলি বাস্তবায়িত হয়েছে। এই বছরই আদানি গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ জ্বালানি খাতে বিপুল বিনিয়োগ করছে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে। এর ফলে শিল্প এবং দেশ একইভাবে বিকাশ লাভ করবে ৷ এমনটাই জানিয়েছেন অর্থনীতিবিদ রবীন্দ্র বৈদ্য ৷

নির্মাণ শিল্পে লোধা গোষ্ঠীর বিনিয়োগও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ৷ এই প্রসঙ্গেই অর্থনীতিবিদ বৈদ্য বলেন, "নির্মাণ ব্যবসায় বৃদ্ধির কারণে এই গোষ্ঠীর সম্পদের পরিমাণ 116 শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে । তবে অর্থনৈতিক মন্দা নির্মাণ শিল্পে বিশেষ ভাবে প্রভাব ফেলেছে ৷ তারপরেও ভারতের মোট আয় এবং মাথাপিছু আয়ও গত কয়েক বছরে উল্লেখ যোগ্যহারে বেড়েছে ৷"

হুরুন 2024 রিপোর্ট কী উল্লেখ রয়েছে :

এখনও পর্যন্ত দেশের উন্নয়নে মুম্বইয়ের শিল্পপতিদের অবদান রয়েছে। বেজিংয়ে এসেছেন 7 জন নতুন বিলিয়নিয়ারের নাম উঠে এসেছে । মুম্বইয়ে 27 জন নতুন বিলিয়নিয়ার এসেছেন । মুম্বাইয়ে মোট সম্পদ বেড়েছে 47 শতাংশ ৷ বেজিংয়ে মোট সম্পদ কমেছে 28 শতাংশ।

ভারতে 94 জন নতুন বিলিয়নেয়ার যুক্ত হয়েছে। সেই তুলনায় চিনে মাত্র 55 জন নতুন বিলিয়নিয়ার যুক্ত হয়েছে। বিলিয়নেয়ারের সংখ্যা বাড়াতে ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ। দেশে বিলিয়নিয়ারের সংখ্যা 271 জন। বিশ্বব্যাপী বিলিয়নেয়ারের সংখ্যা বার্ষিক গড়ে 5 শতাংশ হারে বাড়ছে। বিপরীতে, ভারতের ক্রমবর্ধমান ধনকুবেরের সংখ্যা জার্মানির চেয়ে বেশি ৷ ভারত বিশ্ব অর্থনীতিতে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থান করেছে ভারত ৷ ভারতের আরও নতুন বিলিয়নেয়ার তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে।

হারুন রিসার্চের রিপোর্ট অনুসারে, মহারাষ্ট্রের পর্যটন মন্ত্রী এবং শিল্পপতি মঙ্গল প্রভাত লোধার সম্পত্তি সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে ৷ প্রায় 116 শতাংশ বেড়েছে। বিশ্বের ধনীদের তালিকায় ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানি বিশ্বের ধনীদের তালিকায় 10ম স্থানে রয়েছেন। তার মোট সম্পদ রয়েছে 115 বিলিয়ন ডলার। যেখানে গৌতম আদানি বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় 15 তম স্থানে রয়েছেন। তার সম্পত্তির পরিমাণ 86 বিলিয়ন ডলার। এইচসিএল-এর শিব নাদার 34তম স্থানে রয়েছে। সেরাম ইনস্টিটিউটের সিইও সাইরাস পুনাওয়ালার মোট সম্পত্তির পরিমাণ 82 বিলিয়ন ডলার।

আরও পড়ুন:

  1. কিনতে হবে না, এই 5 অ্যাপ থেকে সামান্য ভাড়ায় চালিয়ে নিন আপনার স্বপ্নের বাইক ! - Bike Rental App
  2. লক্ষ্মীবারে তেজি সূচক, সুদের হার কমানোর ইঙ্গিত মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের - Stock Market
  3. CIBIL স্কোর বাড়াতে কী কী করবেন, জেনে নিন
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.