কাঁটাতার-কংক্রিট ও পুলিশের ব্যারিকেড, কৃষকদের 'দিল্লি চলো' মহামিছিল রুখতে তৈরি প্রশাসন

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 13, 2024, 9:35 AM IST

ETV Bharat

Farmer's Delhi Chalo March: আজ রাজধানীর পথে কৃষকদের মহামিছিল ৷ 2020-21 সালের পর আবারও দাবিদাওয়া নিয়ে আন্দোলনে নেমেছে কৃষক সংগঠনগুলি ৷ মিছিল রুখতে দিল্লিজুড়ে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করেছে প্রশাসন ৷

নয়াদিল্লি, 13 ফেব্রুয়ারি: ফের রাজধানীর পথে কৃষকরা ৷ ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বা এমএসপি-সহ একগুচ্ছ দাবিদাওয়া নিয়ে দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছে কৃষক সংগঠনগুলি ৷ তবে তাতে কোনও রফাসূত্র মেলেনি বলেই জানা গিয়েছে ৷ তাই মঙ্গলবার 'দিল্লি চলো' মহামিছিল ডাক দিয়েছে তারা ৷ ইতিমধ্যেই কৃষক সংগঠনগুলি রাজধানীর উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে ৷

এদিকে এই মহামিছিল রুখতে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করেছে দিল্লি পুলিশ ৷ ইতিমধ্যে 144 ধারা জারি করা হয়েছে ৷ তাই ট্র্যাক্টর নিয়ে বা অন্য কোনও মিছিল করা যাবে না ৷ দিল্লির সঙ্গে গাজিপুর-টিকরি-সম্ভু সীমানায় ব্যারিকেড আর কাঁটাতার দিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷ সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশ ফোর্স-সহ ক্রাইম ব্রাঞ্চের প্রায় 2 হাজার নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন রয়েছে ৷

হরিয়ানা সরকার আগেই জানিয়েছিল, পঞ্জাব-হরিয়ানা সীমানা যেমন অম্বালা, জিন্দ, ফতেহবাদ, কুরুক্ষেত্র এবং সিরসায় কৃষকদের আটকাতে সবরকম ব্যবস্থা করবে প্রশাসন ৷ সেই অনুযায়ী দুই রাজ্যের সীমানায় কাঁটাতার, কংক্রিটের ব্লক, লোহার তার, ব্যারিকেড দিয়ে রাখা হয়েছে ৷ এমনকী হরিয়ানার 15টি জেলায় 144 ধারাও জারি করা হয়েছে ৷ এর ফলে পাঁচ জন বা তার বেশি সংখ্যা মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ ৷ ট্র্যাক্টর বা অন্য কোনও কিছু নিয়েই মিছিল করা যাবে না ৷

পঞ্জাবে কৃষকদের দাবিদাওয়া নিয়ে আন্দোলনে নেমেছে অরাজনৈতিক কৃষক সংগঠন 'সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা' এবং 'কিষাণ মজদুর মোর্চা' ৷ তারা আজ সকাল 10টায় মিছিল বের করবে বলে জানিয়েছে ৷ অম্বালা-শম্ভু, খানৌরি-জিন্দ এবং দাবওয়ালি সীমানা দিয়ে দিল্লির দিকে এগিয়ে যাবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ৷

এই মিছিল ঠেকাতে সোমবার রাতেই কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকে করে কেন্দ্রীয় সরকার ৷ পাঁচ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলেছে এই বৈঠক ৷ কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সারওয়ান সিং পানধের বলেন, "আমাদের মনে হচ্ছে, সরকার আমাদের দাবিদাওয়াগুলিকে খুব গুরুত্ব দিয়ে দেখছে না ৷ তারা আমাদের দাবিগুলি পূরণ করতে চায় না ৷ আমরা সকাল 10 টায় দিল্লির দিকে মিছিল করে এগিয়ে যাব ৷"

তবে কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী অর্জুন মুণ্ডা এবং কেন্দ্রীয় খাদ্য ও উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল জানিয়েছেন, সোমবার রাতের বৈঠক কিছুটা ফলপ্রসূ হয়েছে ৷ কৃষক নেতাদের সঙ্গে একমতে পৌঁছনো গিয়েছে ৷ একটি কমিটিও গঠন কর হবে ৷ কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী অর্জুন মুণ্ডা বলেন, "আমরা এখনও আশা করছি কৃষক সংগঠনগুলি আলোচনায় বসবে ৷ আমরা আগামিদিনে বেশ কিছু ইস্যু সমাধান করতে পারব ৷"

এদিকে অরাজনৈতিক কৃষক সংগঠন সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার নেতা জগজিৎ সিং দাল্লেওয়াল বলেন, "এমএসপি-র আইনি নিশ্চয়তা, ঋণ মকুব, স্বামীনাথন কমিশনের প্রস্তাবগুলি কার্যকর করতে চায় সরকার ৷ আর সেই কারণে কমিটিও গঠন করতে চায় ৷ বৈঠকে কী আলোচনা হয়েছে, তা কৃষকদের বিস্তারিত জানাব ৷ তবে দিল্লি আমরা যাবই ৷"

আরও পড়ুন:

  1. মঙ্গলে কৃষকদের প্রতিবাদ মিছিল, আজ থেকে হরিয়ানার 7টি জেলায় বন্ধ ইন্টারনেট সংযোগ
  2. এমএসপি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কৃষক আন্দোলন চলবে, জানালেন রাকেশ টিকায়েত
  3. আন্দোলনরত কৃষকদের গাড়ি চাপা দেওয়ার অভিযোগ, উত্তাল লাখিমপুর খেরি
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.