ভূস্বর্গে লস্কর মডিউল চালানোর অভিযোগে দিল্লিতে গ্রেফতার অবসরপ্রাপ্ত সেনাকর্মী

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Feb 6, 2024, 5:16 PM IST

ETV BHARAT

Former Army Man Arrested in Delhi: পুলিশের একটি বিবৃতি অনুসারে, রিয়াজ আহমেদ পালানোর চেষ্টা চেষ্টা করছিলেন ৷ সেই সময় 4 ফেব্রুয়ারি নয়াদিল্লি রেলওয়ে স্টেশন থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় ৷ ইটিভি ভারতের মহম্মদ জুলকারনাইন জুলফির প্রতিবেদন ৷

শ্রীনগর/নয়াদিল্লি, 6 ফেব্রুয়ারি: জঙ্গি কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগে এক অবসরপ্রাপ্ত সেনাকর্মীকে গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিশ ৷ তারা মঙ্গলবার এ কথা জানিয়ে বলেছে, জম্মু ও কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলায় সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা লস্কর-ই-তৈবা মডিউলে ধৃত সেনাকর্মী মূল ষড়যন্ত্রকারী হিসাবে কাজ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে ।

দিল্লি পুলিশের এক মুখপাত্র এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, কুপওয়ারার কর্নার বাসিন্দা রিয়াজ আহমেদ রাথার নামে অভিযুক্তকে 4 ফেব্রুয়ারি নয়াদিল্লি রেলওয়ে স্টেশন থেকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ ৷ ধৃত তখন পালানোর চেষ্টা করছিলেন বলে জানা গিয়েছে । দিল্লি পুলিশের মতে, রিয়াজ গত বছরের 31 জানুয়ারি ভারতীয় সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেন । তিনি সেনাবাহিনীতে কোন পদে কাজ করেছেন তা বিবৃতিতে নিশ্চিত করা হয়নি ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, কর্নার অন্য দুই বাসিন্দা খুরশিদ আহমেদ রাথার এবং গুলাম সারওয়ার রাথারের সঙ্গে ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে রিয়াজের বিরুদ্ধে ৷ নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর সন্ত্রাসী হ্যান্ডলারদের মাধ্যমে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাওয়ার চেষ্টায় ছিলেন রিয়াজ ৷ 4 ফেব্রুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরের তদন্ত সংস্থাগুলি থেকে এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়, সেখানে বলা হয়েছে যে কর্নাতে সম্প্রতি লুকনো সন্ত্রাসী মডিউলের সঙ্গে জড়িত ছিলেন রিয়াজ ৷

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, রিয়াজকে পলাতক বলে সন্দেহ করা হয়েছিল এবং 4 ফেব্রুয়ারি ভোরের দিকে নয়াদিল্লি রেলওয়ে স্টেশনে তিনি পৌঁছবেন বলে খবর ছিল । পরিস্থিতির গুরুত্ব অনুধাবন করে দ্রুত একটি দল গঠন করা হয় এবং নয়াদিল্লির মূল প্রবেশ, প্রস্থান ও কৌশলগত পয়েন্টগুলিতে তাদের মোতায়েন করা হয় ।

বিবৃতিতে লেখা হয়েছে, "সতর্ক পুলিশ কর্মীরা খুব দ্রুত কাজ করেন ৷ রিয়াজ আহমেদকে শনাক্ত করে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় ৷ তিনি ভোরবেলা এক্সিট গেট নং 1 দিয়ে পালানোর চেষ্টা করছিলেন । টানা জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায় যে, আহমেদ তাঁর বন্ধু আলতাফের সঙ্গে জবলপুর থেকে মহাকৌশল এক্সপ্রেসে চড়েছিলেন । 3 ফেব্রুয়ারি আনুমানিক বিকেল 3টেয় হজরত নিজামউদ্দিন রেলওয়ে স্টেশনে তাঁরা পৌঁছন । সেখান থেকে তাঁরা এনডিআরএস-এ পৌঁছনোর জন্য একটি অটো নেন, যেখান থেকে আহমদের অন্য একটি আস্তানায় স্থানান্তরের পরিকল্পনা ছিল ।"

একসময়ে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের হাতে ধৃত রাথার খুরশিদ আহমেদ এবং গোলাম সারওয়ার রাথারের থেকে রিয়াজ আহমেদের অস্ত্র ও গোলাবারুদের একটি চালান পেয়েছেন বলে সন্দেহ করা হচ্ছে ৷ পুলিশ আহমদের কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন ও একটি সিমকার্ড উদ্ধার করেছে । আইনের উপযুক্ত ধারার অধীনে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে, এবং আরও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের কর্মকর্তাদের যথাযথভাবে অবহিত করা হয়েছে ।

আরও পড়ুন:

  1. উত্তর পশ্চিম পাকিস্তানের থানায় জঙ্গি হামলা, নিহত অন্তত 10
  2. আড়ালে পাকিস্তানের চরবৃত্তির অভিযোগ, মেরঠ থেকে গ্রেফতার ভারতীয় দূতাবাসেরই এক কর্মী
  3. আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আইসিস জঙ্গি! পুলিশের জালে ফৈজান
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.