স্বাধীন ভারতের প্রথম ভোটার, জানেন ইনি কে ?

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 25, 2024, 7:49 PM IST

shyam saran negi

National Voters Day: আজ জাতীয় ভোটার দিবস ৷ কিন্তু জানেন ইনিই স্বাধীন ভারতের প্রথম ভোটার ৷ যিনি শেষ নিঃশ্বাস নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে ভোট দিয়েছেন । 105 বছর বয়সে মৃত্যু হয় তাঁর ৷ জেনে নিন কে এই গণতন্ত্রের মহানায়ক ৷

সিমলা/কিন্নর, 25 জানুয়ারি: আপনি কি জানেন দেশের প্রথম ভোটার কে? দেশে প্রথম নির্বাচন কবে অনুষ্ঠিত হয়? নির্বাচনের পাঁচ মাস আগে কেন হিমাচলে ভোট হয়? এই প্রশ্নগুলির উত্তরের পিছনে রয়েছে একটি মজার গল্প ৷ যেখানে একজন সাধারণ স্কুল শিক্ষক হয়ে উঠেছিলেন গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর । জীবনে যেমনই পরিস্থিতি আসুক না কেন, তিনি প্রতিবারই ভোট দিয়েছেন ৷ এমনকী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগের আগেও তিনি ভোট দিয়ে গিয়েছেন । আজ জাতীয় ভোটার দিবস ৷ এই দিনে গণতন্ত্রের এই মহানায়কের কথা উল্লেখ করতেই হবে ৷ যিনি আজীবন ভোটের গুরুত্ব বুঝিয়েছেন দেশবাসীকে । ইনি হলেন দেশের প্রথম ভোটার শ্যাম শরণ নেগি ।

স্বাধীনতার পর প্রথম নির্বাচনে প্রথম ভোট

স্বাধীনতার প্রায় 5 বছর পর 1952 সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ৷ কিন্তু হিমাচলের আদিবাসী এলাকায় তুষারপাতের কারণে অন্যান্য জায়গার প্রায় 5 মাস আগে 1951 সালের অক্টোবরে এখানে নির্বাচন হয়ে যায় । যেখানে প্রথম হিমাচলের কিন্নর জেলার মাস্টার মশাই শ্যাম শরণ নেগি ভোট দিয়েছিলেন । শ্যাম শরণ নেগি 1 জুলাই 1917 সালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ৷ প্রথম ভোট দেওয়ার সময় তাঁর বয়স ছিল 34 বছর । তিনি যেহেতু শিক্ষক ছিলেন তাই ভোটের দায়িত্ব পরেছিল অন্য কোনও এলাকায় ৷ তবে তিনি প্রকৃতপক্ষে কল্পার ভোটার ছিলেন ।

First voter of independent India
স্বাধীন ভারতের প্রথম ভোটার শ্যাম শরণ নেগি

ইটিভি ভারতের সঙ্গে আলাপচারিতায় মাস্টারমশাই বলেছিলেন, "আমি প্রিজাইডিং অফিসারকে বলেছিলাম যে আমাকে ভোট দিতে হবে ৷ তিনি বলেছিলেন যে এখানে 100 শতাংশ ভোট হবে । তাই আমি সন্ধ্যায় আমার বাড়িতে ফিরে আসি এবং পরদিন সকালে 6টার আগে ভোট দিতে যাই ৷ কিন্তু যখন আমি ভোট দেওয়ার জন্য ভোট কেন্দ্রে পৌছলাম ততক্ষণে নির্বাচন পরিচালনাকারী দলও আসেনি । আমি তাদের অনুরোধ করেছিলাম যেন আমাকে তাড়াতাড়ি ভোট দিতে দেওয়া হয় ৷ যাতে আমি ভোটের দায়িত্বে সময়ে যেতে পারি । তারপর আমি সবার আগে আমার ভোট দিলাম এবং এরপর আমার ভোটকেন্দ্রে ডিউটিতে গিয়েছিলাম ৷"

First voter of independent India
শ্যাম শরণ নেগি ছিলেন স্কুল শিক্ষক

2007 সালে দেশের প্রথম ভোটারের পরিচয় মেলে

1951 সালের অক্টোবরের সেই সকালে হুট করে দেওয়া ভোটটি শ্যাম শরণ নেগির পরিচয় হয়ে যায় । কিন্তু এই পরিচয় জানতে তাঁর প্রায় 56 বছর সময় লেগেছে । এর জন্য কৃতিত্ব যায় হিমাচলের প্রাক্তন নির্বাচন কর্মকর্তা মনীষা নন্দাকে ৷ যিনি 2007 সালের প্রথম সাধারণ নির্বাচনে ভোটদানকারী ভোটারদের চিহ্নিত করার সময় সমস্ত তথ্য যাচাই-বাছাই করেছিলেন ৷ যার জন্য বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র তার প্রথম ভোটারের সঙ্গে পরিচিত হয়েছিল । সিমলা থেকে দিল্লি পর্যন্ত ফাইলের কাজ এবং চিন্তাভাবনার অনেক মাস পরে স্বাধীন ভারতের প্রথম ভোটারের নাম সবার সামনে আসে । দেশ জানতে পারে শ্যাম শরণ নেগি দেশের প্রথম ভোটার ৷ তারপরে 2010 সালে দেশের প্রধান নির্বাচন কমিশনার নবীন চাওলা কিন্নর পৌঁছে শ্যাম শরণ নেগিকে সম্মান জানান ।

First voter of independent India
হিমাচলের বাসিন্দা শ্যাম শরণ নেগি

প্রতিটি ভোট দিয়েছেন

শ্যাম শরণ নেগি মোট 34 বার ভোট দিয়েছেন । বিধানসভা নির্বাচন হোক, লোকসভা নির্বাচন বা গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচন, শ্যাম শরণ নেগি প্রতিটি কাজকে পিছনে ফেলে ভোট দিতেন । তরুণদের ভোট দেওয়ার পরামর্শও দেন তিনি । নতুন শতাব্দীর প্রথম দশকে দেশ যখন তার প্রথম ভোটারকে চিনেছে তখন তিনি হয়ে উঠেছেন গণতন্ত্রের প্রতীক । 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে গুগল ইন্ডিয়া শ্যাম শরণ নেগির উপর একটি ডকুমেন্টারি তৈরি করেছিল এবং তাঁকে গণতন্ত্রের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর বানিয়ে ভোট দেওয়ার বিষয়ে সচেতনতা ছড়িয়েছিল ।

মৃত্যুর 3 দিন আগে তিনি শেষ ভোট দিয়েছেন

12 নভেম্বর 2022 সালে হিমাচল প্রদেশে ভোট হওয়ার কথা ছিল । তখন শ্যাম শরণ নেগির স্বাস্থ্যের অবস্থা খুবই খারাপ ছিল । 80 বছরের বেশি বয়স এবং শারীরিক প্রতিবন্ধকতা রয়েছে যাদের বাড়ি থেকে তাদের ভোট দেওয়ার সুবিধা করে দেয় নির্বাচন কমিশন । আগ্রহী ব্যক্তিরা ফর্ম 12ডি পূরণ করে এই সুবিধা পেতে পারেন । নির্বাচন কমিশন শ্যাম শরণ নেগির কাছেও আবেদন করেছিল বাড়ি থেকে ভোট দিতে কিন্তু প্রথমে তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন এবং বলেছিলেন যে তিনি শুধুমাত্র ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেবেন । তখন ইটিভি ভারতের সঙ্গে কথা বলার সময় শ্যাম শরণ নেগি বলেছিলেন, "এই মুহূর্তে আমার অবস্থা খারাপ ৷ আমি জানি না আমার শরীর নড়বে কি না । তবে আমি হোঁচট খেলেও ভোট কেন্দ্রে গিয়েই ভোট দেব।"

First voter of independent India
গণতন্ত্রের মহানায়ক শ্যাম শরণ নেগি

কিন্তু পরে শ্যাম শরণ নেগির স্বাস্থ্যের অবনতি হতে থাকে । 105 বছর বয়সি শ্যাম শরণ নেগি সম্ভবত জানতেন যে তাঁর শেষ সময় ঘনিয়ে এসেছে । তাই বাড়ি থেকে ভোট দেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন তিনি । 2 নভেম্বর 2022 সালে হিমাচলের ভোটের 10 দিন আগে নির্বাচন কমিশন তাঁর বাড়িতে সম্পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়েছিল এবং শ্যাম শরণ নেগি তাঁর ভোট দেন সেখানে । 3 দিন পরে 5 নভেম্বর 2022 সালে শ্যাম শরণ নেগির মৃত্যু হয় ৷ কিন্তু শেষ নিঃশ্বাসের আগেও তিনি তাঁর ভোট দিয়ে গিয়েছেন ।

গণতন্ত্রের মহানায়ক

শ্যাম শরণ নেগি গণতন্ত্রের নায়ক ছিলেন । শ্যাম শরণ নেগি বন বিভাগে এবং তারপরে স্কুল শিক্ষক হিসাবে কাজ করেছেন ৷ সারাজীবন ভোটের গুরুত্ব বুঝিয়েছন তিনি । দেশের প্রথম ভোটার হওয়ায় তিনি দেশের ভিভিআইপি ভোটার ছিলেন । ভোটের দিন স্থানীয় প্রশাসন তাঁকে তাঁর বাড়ি থেকে বাদ্যযন্ত্র নিয়ে ভোটকেন্দ্রে নিয়ে যেত । তাঁকে নির্দিষ্ট বুথে রেড কার্পেট ও ফুলের মালা দিয়ে স্বাগত জানানো হত ।

শ্যাম শরণ নেগি সেই সমস্ত লোকদের, বিশেষত যুবকদের জন্য একটি উদাহরণ যারা ভোটকে কেবল ছুটি হিসাবে বিবেচনা করে । গণতন্ত্রের মহান উৎসবে প্রতিটি ভোট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ৷ শ্যাম শরণ নেগি শেখাতেন যে প্রতিটি জলের ফোঁটা একটি সমুদ্র তৈরি করে ৷ তাই আপনার একটি ভোটের গুরুত্ব অনেক । ভোট দিন ৷ আপনার ভোট শুধু বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করবে না, দেশের প্রথম ভোটারের প্রতিও শ্রদ্ধা নিবেদন হবে ।

আরও পড়ুন:

  1. স্যান্ড আর্টে জাতীয় ভোটার দিবসের অভিনন্দন সুদর্শন পট্টনায়েকের
  2. জাতীয় ভোটার দিবসে নির্বাচন কমিশনের বিশেষ অনুষ্ঠান
  3. জাতীয় ভোটার দিবসে মোদির মুখে নির্বাচন কমিশনের প্রশংসা
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.