ETV Bharat / state

Life Imprisonment: অ্যাসিড ছুড়ে হত্যা! 19 বছর পর অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন সাজা দিল আদালত

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Oct 10, 2023, 11:06 PM IST

প্রতিবেশীকে অ্যাসিড ছুড়েছিল অভিযুক্ত ৷ তাতেই শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে যায় আহতের ৷ 50 দিন কঠিন লড়াইয়ের পর মৃত্যু হয় তাঁর ৷ তারপরই থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করে মৃতের পরিবার ৷ তাতেই 19 বছর মামলা চলার পর অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন সাজা শোনাল আদালত ৷

Etv Bharat
আসামীকে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ
আইনজীবীর বক্তব্য

দাসপুর, 10 অক্টোবর: প্রতিবেশীকে অ্যাসিড ছুড়ে হত্যা করার অপরাধে অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন দোষী সাব্যস্ত করল আদালত ৷ 19 বছর ধরে মামলা চলার পর মঙ্গলবার অভিযুক্তের যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে ঘাটাল মহকুমা আদালত ।

ঘটনাক্রমে জানা গিয়েছে, 2005 সালের 22 জুলাই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর থানার বড় শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা রতন সামন্তের গায়ে অ্যাসিড ছোড়ে প্রতিবেশী নন্দ সামন্ত । যার জেরে রতনের শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে অ্যাসিডে যায় । এই ঘটনায় প্রথমে তাঁকে চিকিৎসার জন্য দাসপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । তারপর সেখান থেকে ঘাটাল মহকুমা হাসপাতাল এবং তারপর চিকিৎসার জন্য স্থানান্তরিত করা হয় কলকাতায় ।

কলকাতায় চিকিৎসা চলাকালীন ঘটনার 50 দিন পর 9 সেপ্টেম্বর মৃত্যু হয় রতনের ৷ এরপরই মৃতের স্ত্রী বিভা সামন্ত তার স্বামীর গায়ে অ্যাসিড ছুড়ে হত্যা করার অপরাধে তাদের প্রতিবেশী নন্দ সামন্তর নামে দাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযোগ পেয়ে নন্দ সামন্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ । তারপর অ্যাসিড হামলায় রতন সামন্তের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত নন্দ সামন্তের নামে ঘাটাল মহকুমা আদালতে মামলা শুরু হয় । দীর্ঘ কয়েকবছর মামলা চলার পর অবশেষে আজ অভিযুক্ত নন্দ সামন্তের যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে ঘাটাল মহকুমা আদালত ।

এইদিন আসামী নন্দ সামন্তকে 304 এবং 326 ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে আদালত । দু'টো ধারাতেই যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করেন ঘাটাল মহকুমার আদালতের বিচারক মদনমোহন মিশ্র ।

এই বিষয়ে সরকারি পক্ষের আইনজীবী তপন ভট্টাচার্য বলেন, " ঘটনাটি 2005 সালের ৷ অভিযোগ দায়ের হয় 2007 সালে ৷ দীর্ঘদিন ধরে এই মামলা চলছিল । যুক্তি আর পালটা যুক্তির পর অবশেষে সাজা ঘোষণা হয়েছে সর্বোচ্চ । এরই সঙ্গে বেশ কিছু জরিমানা করা হয়েছে ৷ তা না দিতে পারলে আরও জেলের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে । এই শাস্তি ঘোষণাতে স্বস্তি পেয়েছে অভিযোগকারিণী ।"

আরও পড়ুন : স্ত্রীকে পুড়িয়ে খুন ! 8 বছর পর স্বামীকে যাবজ্জীবন সাজা শোনাল আদালত

আইনজীবীর বক্তব্য

দাসপুর, 10 অক্টোবর: প্রতিবেশীকে অ্যাসিড ছুড়ে হত্যা করার অপরাধে অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন দোষী সাব্যস্ত করল আদালত ৷ 19 বছর ধরে মামলা চলার পর মঙ্গলবার অভিযুক্তের যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে ঘাটাল মহকুমা আদালত ।

ঘটনাক্রমে জানা গিয়েছে, 2005 সালের 22 জুলাই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর থানার বড় শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা রতন সামন্তের গায়ে অ্যাসিড ছোড়ে প্রতিবেশী নন্দ সামন্ত । যার জেরে রতনের শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে অ্যাসিডে যায় । এই ঘটনায় প্রথমে তাঁকে চিকিৎসার জন্য দাসপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । তারপর সেখান থেকে ঘাটাল মহকুমা হাসপাতাল এবং তারপর চিকিৎসার জন্য স্থানান্তরিত করা হয় কলকাতায় ।

কলকাতায় চিকিৎসা চলাকালীন ঘটনার 50 দিন পর 9 সেপ্টেম্বর মৃত্যু হয় রতনের ৷ এরপরই মৃতের স্ত্রী বিভা সামন্ত তার স্বামীর গায়ে অ্যাসিড ছুড়ে হত্যা করার অপরাধে তাদের প্রতিবেশী নন্দ সামন্তর নামে দাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযোগ পেয়ে নন্দ সামন্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ । তারপর অ্যাসিড হামলায় রতন সামন্তের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত নন্দ সামন্তের নামে ঘাটাল মহকুমা আদালতে মামলা শুরু হয় । দীর্ঘ কয়েকবছর মামলা চলার পর অবশেষে আজ অভিযুক্ত নন্দ সামন্তের যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে ঘাটাল মহকুমা আদালত ।

এইদিন আসামী নন্দ সামন্তকে 304 এবং 326 ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে আদালত । দু'টো ধারাতেই যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করেন ঘাটাল মহকুমার আদালতের বিচারক মদনমোহন মিশ্র ।

এই বিষয়ে সরকারি পক্ষের আইনজীবী তপন ভট্টাচার্য বলেন, " ঘটনাটি 2005 সালের ৷ অভিযোগ দায়ের হয় 2007 সালে ৷ দীর্ঘদিন ধরে এই মামলা চলছিল । যুক্তি আর পালটা যুক্তির পর অবশেষে সাজা ঘোষণা হয়েছে সর্বোচ্চ । এরই সঙ্গে বেশ কিছু জরিমানা করা হয়েছে ৷ তা না দিতে পারলে আরও জেলের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে । এই শাস্তি ঘোষণাতে স্বস্তি পেয়েছে অভিযোগকারিণী ।"

আরও পড়ুন : স্ত্রীকে পুড়িয়ে খুন ! 8 বছর পর স্বামীকে যাবজ্জীবন সাজা শোনাল আদালত

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.