পরকীয়ার জেরে প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুন মহিলার, গল্প ফেঁদেও মিলল না রেহাই

author img

By ETV Bharat Bangla Desk

Published : Jan 17, 2024, 10:11 PM IST

Etv Bharat

Extra Marital Affair: পরকীয়া থেকে স্বামীকে খুন! গল্প ফেঁদে হল না রেহাই ৷ পুলিশের জালে টোটো চালকের স্ত্রী। অভিযুক্তের 5 দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ ৷

মালদা, 17জানুয়ারি: পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রী'য়ের পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন স্বামী। প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে সেই কাঁটা উপড়ে ফেলল স্ত্রী ৷ এমনকী স্বামীকে খুনের পর গল্পও ফেঁদেছিল ওই মহিলা ৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত রেহাই মিলল না ৷ অবশেষে পুলিশের জালে অভিযুক্ত। পুরো ঘটনায় ওই মহিলাকে সাহায্য করেছিল তার প্রেমিক। মহিলার স্বামী ছিলেন পেশায় টোটো চালক ৷ ঘটনায় স্ত্রী'কে গ্রেফতার করে বুধবার মালদা জেলা আদালতে পেশ করে ইংরেজ বাজার থানার পুলিশ। আদালত পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে অভিযুক্তকে ৷

পুলিস সূত্রে খবর, প্রাথমিক জেরায় অভিযুক্ত স্বীকার করে নিয়েছে খুনের কথা ৷ নিহতের স্ত্রী জানায়, দু’বছর তাদের বিয়ে হয়েছে । দু'জনের একটি মেয়েও আছে ৷ স্বামী প্রথম থেকেই তার ওপর অত্যাচার চালাত। সেই কারণে গলায় ওড়না জড়িয়ে স্বামীকে হত্য়া করেছে সে। এই কাজে তাকে তার প্রেমিক সাহয্য করেছে ৷ ওই মহিলার প্রেমিকের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ ৷

মালদার ইংরেজ বাজার এলাকার নেতাজি কলোনির বাসিন্দা ওই টোটো চালক ৷ গতকালই তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয় ৷ পরিবারের পক্ষ থেকে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয় ৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু করে পুলিশ ৷ তদন্তে নেমেই পুলিশ নিহতের স্ত্রী'র সঙ্গে কথা বলে ৷ সামনে আসে পরকীয়া তত্ত্ব। জানা যায়, মহিলার সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে এক যুবকের ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। বিষয়টি জানতে পেরে গিয়েছিলেন ওই টোটো চালক। এ নিয়ে পরিবারে প্রায় দিনই অশান্তি লেগে থাকত। ঘটনার আগেও দিনও পরিবারে অশান্তি হয়েছিল ৷ তাই স্বামীকে খুনের পরিকল্পনা করে সে ৷ প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে স্বামীকে শ্বাসরোধ করে খুন করে সে ৷ এমনটাই জানানো হয়েছে পুলিশ সূত্রে ৷

পুলিশি জেরায় নিহতের স্ত্রী প্রথমে জানায়, তাঁর স্বামী বাইরে গিয়েছিলেন ৷ সেই সময়েই কেউ বা কারা ওই টোটো চালককে খুন করেন ৷ রাতে কোনও যানবাহন না-থাকায় এবং প্রতিবেশীরা কেউ এগিয়ে না-আসায় স্বামীকে হাসপাতালে আনতে পারেনি সে। ওই মহিলার বয়ানেই সন্দেহ হয় পুলিশের ৷ এরপরই পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করে জেরা করা শুরু করে ৷ জেরায় নিহতের স্ত্রী স্বামীকে খুনের কথা স্বীকার করে নেয় ৷ সবমিলিয়ে পুলিশের চোখে ধুলো দেওয়ার হাজার চেষ্টা করেও আপাতত শ্রীঘরই ঠিকানা স্ত্রী'র ৷

আরও পড়ুন:

  1. পরকীয়া সন্দেহে গৃহবধূর চুল কেটে মারধরের অভিযোগ
  2. পরকীয়া ফাঁস হয়ে যাওয়ায় পরিবারের তিন সদস্য়কে খুনের ষড়যন্ত্র, দু’মাস পর ধৃত বধূ
  3. পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ, থানায় আত্মসমর্পণ অভিযুক্তের
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.