ETV Bharat / state

Reaction on Union Budget 2023: চা শিল্পের উন্নয়নের জন্য বাজেটে বরাদ্দ নেই, ঘোষিত প্রকল্পে লাভবান হবে ক্ষুদ্র চাষিরা ?

author img

By

Published : Feb 2, 2023, 9:16 PM IST

বুধবার পেশ হয়েছে কেন্দ্রীয় বাজেট ৷ তাতে চা শিল্পের উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ নেই ৷ তবে কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটে (Union Budget 2023) পরোক্ষভাবে লাভবান হবে ক্ষুদ্র চা চাষিরা বলে মনে করছেন জলপাইগুড়িবাসী ৷

tea workers
বাজেট
বাজেটে ঘোষিত প্রকল্পে কতটা লাভবান হবে ক্ষুদ্র চা চাষিরা

জলপাইগুড়ি, 2 ফেব্রুয়ারি: কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটে (Union Budget 2023) লাভবান হবে ক্ষুদ্র চা চাষিরা । এমনটাই দাবি জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি (tea workers) সমিতির । অন্যদিকে এই বাজেটে সাধারণ মানুষের জন্য ভালোই হবে বলে মনে করছেন অনেকেই । সরাসরিভাবে চা শিল্পের উন্নয়নের কেন্দ্রীয় বাজেটের কোন বরাদ্দ নেই ৷ তবে পরোক্ষভাবে চাষিদের লাভ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি সমিতির সম্পাদক বিজয়গোপাল চক্রবর্তী । কেন্দ্র বাজেটে এবার কৃষকদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য বেশি কিছু প্রকল্প নেওয়া হয়েছে । সব মিলিয়ে কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেল জলপাইগুড়িবাসীর তরফে ।

জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি সমিতির সম্পাদক বিজয়গোপাল চক্রবর্তী বলেন, "চা চাষের ক্ষেত্রে আমাদের সার কিনতে হয় । নতুন পিএম প্রণাম প্রকল্পের মাধ্যমে আমরা যদি জৈবিক সার করতে পারি, তাহলে আমাদের চায়ের গুনগত মান বৃদ্ধি হবে । অন্যদিকে যে টাকায় সার কেনা হত তার কম দামে সেগুলি পাওয়া যাবে । আয়করের যে স্ল্যাব বেড়েছে তাতে করে নিম্ব মধ্যবিত্ত থেকে কৃষক শ্রেণির পক্ষ ভালো হবে । আয়করের উর্দ্ধসীমা দু'লক্ষ টাকা বেড়ে যাওয়া খুবই ভালো বিষয় ।"

তিনি আরও বলেন, "ভারতবর্ষে চায়ের যা উৎপাদন হয়, তার 55 শতাংশ চা উৎপাদন হয় ছোট বাগান থেকে । ফলে ছোট বাগানের চাষিদের এই বাজেটে খুবই উপকার হবে । চাষিদের জন্য যা বরাদ্দ হয়েছে তাতে করে তাদের অনেক লাভ হবে । ভারতকে বাইরের দেশ থেকে সার নিয়ে আসতে হচ্ছে । ফলে নিজেদের এলাকায় সার তৈরির যে প্রকল্প পিএম প্রণাম ঘোষণা করা হয়েছে, তাতে করে কৃষকরা লাভবান হবে । জৈব চা চাষে আমরা একটা ভালো বাজার খুজে পাব । খরচও কম হবে ।"

প্রবীণ নাগরিকদের তরফে বাজেট নিয়ে মিলেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ৷ শৈবাল দাসগুপ্ত বলেন, "এটি কসমেটিক বাজেট । এই বাজেটের ভেতরে আরও বাজেট রয়েছে । তবে কৃষকদের জন্য যে বরাদ্দ করা হয়েছে, তাতে করে কৃষকরা লাভবান হবে বলে আশা করা যায় ।" প্রদীপ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, "এই বাজেট জনমুখী । আয়কর ছাড় দেওয়া । রেলে বেশি বিনিয়োগ, সারা দেশে নার্সিং কলেজ এয়ারপোর্ট-সহ কৃষি ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে ।"

আরও পড়ুন: চা শ্রমিকদের জন্য একাধিক ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

বাজেটে ঘোষিত প্রকল্পে কতটা লাভবান হবে ক্ষুদ্র চা চাষিরা

জলপাইগুড়ি, 2 ফেব্রুয়ারি: কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটে (Union Budget 2023) লাভবান হবে ক্ষুদ্র চা চাষিরা । এমনটাই দাবি জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি (tea workers) সমিতির । অন্যদিকে এই বাজেটে সাধারণ মানুষের জন্য ভালোই হবে বলে মনে করছেন অনেকেই । সরাসরিভাবে চা শিল্পের উন্নয়নের কেন্দ্রীয় বাজেটের কোন বরাদ্দ নেই ৷ তবে পরোক্ষভাবে চাষিদের লাভ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি সমিতির সম্পাদক বিজয়গোপাল চক্রবর্তী । কেন্দ্র বাজেটে এবার কৃষকদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য বেশি কিছু প্রকল্প নেওয়া হয়েছে । সব মিলিয়ে কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেল জলপাইগুড়িবাসীর তরফে ।

জলপাইগুড়ি জেলা ক্ষুদ্র চা চাষি সমিতির সম্পাদক বিজয়গোপাল চক্রবর্তী বলেন, "চা চাষের ক্ষেত্রে আমাদের সার কিনতে হয় । নতুন পিএম প্রণাম প্রকল্পের মাধ্যমে আমরা যদি জৈবিক সার করতে পারি, তাহলে আমাদের চায়ের গুনগত মান বৃদ্ধি হবে । অন্যদিকে যে টাকায় সার কেনা হত তার কম দামে সেগুলি পাওয়া যাবে । আয়করের যে স্ল্যাব বেড়েছে তাতে করে নিম্ব মধ্যবিত্ত থেকে কৃষক শ্রেণির পক্ষ ভালো হবে । আয়করের উর্দ্ধসীমা দু'লক্ষ টাকা বেড়ে যাওয়া খুবই ভালো বিষয় ।"

তিনি আরও বলেন, "ভারতবর্ষে চায়ের যা উৎপাদন হয়, তার 55 শতাংশ চা উৎপাদন হয় ছোট বাগান থেকে । ফলে ছোট বাগানের চাষিদের এই বাজেটে খুবই উপকার হবে । চাষিদের জন্য যা বরাদ্দ হয়েছে তাতে করে তাদের অনেক লাভ হবে । ভারতকে বাইরের দেশ থেকে সার নিয়ে আসতে হচ্ছে । ফলে নিজেদের এলাকায় সার তৈরির যে প্রকল্প পিএম প্রণাম ঘোষণা করা হয়েছে, তাতে করে কৃষকরা লাভবান হবে । জৈব চা চাষে আমরা একটা ভালো বাজার খুজে পাব । খরচও কম হবে ।"

প্রবীণ নাগরিকদের তরফে বাজেট নিয়ে মিলেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ৷ শৈবাল দাসগুপ্ত বলেন, "এটি কসমেটিক বাজেট । এই বাজেটের ভেতরে আরও বাজেট রয়েছে । তবে কৃষকদের জন্য যে বরাদ্দ করা হয়েছে, তাতে করে কৃষকরা লাভবান হবে বলে আশা করা যায় ।" প্রদীপ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, "এই বাজেট জনমুখী । আয়কর ছাড় দেওয়া । রেলে বেশি বিনিয়োগ, সারা দেশে নার্সিং কলেজ এয়ারপোর্ট-সহ কৃষি ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে ।"

আরও পড়ুন: চা শ্রমিকদের জন্য একাধিক ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.