MEA Slams EU Parliament: 'মণিপুর নিয়ে আলোচনা ঔপনিবেশিক মানসিকতার প্রতিফলন', তোপ বিদেশ মন্ত্রকের

author img

By

Published : Jul 14, 2023, 7:08 AM IST

Updated : Jul 14, 2023, 8:55 AM IST

ETV Bharat

মে মাসের শুরু থেকে জ্বলছে মণিপুর ৷ এখনও অব্যাহত হিংসা ৷ এবার মণিপুর নিয়ে আলোচনার জন্য ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পার্লামেন্ট একটি প্রস্তাব গ্রহণ করল ৷ এই পদক্ষেপকে ভালো চোখে দেখেনি ভারত ৷

নয়াদিল্লি, 14 জুলাই: শান্ত হোক মণিপুর ৷ সুরক্ষিত হোক সংখ্যালঘুদের জীবন ৷ এই বিষয়ে আলোচনার জন্য প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পার্লামেন্টে ৷ এই পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করল বিদেশ মন্ত্রক ৷ বৃহস্পতিবার মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি টুইট করে লেখেন, "ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে এই ধরনের নাক গলানো কোনওভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় ৷ এটি ঔপনিবেশিক মানসিকতার প্রতিফলন ৷"

এই প্রস্তাবে পার্লামেন্ট ভারতের কাছে আর্জি জানিয়েছে, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ মণিপুরের এই হিংসা বন্ধ করুক ৷ সংখ্যালঘুদের রক্ষা করুক ৷ এই প্রসঙ্গে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, "আমরা দেখেছি, পার্লামেন্ট মণিপুরের অবস্থা নিয়ে বৈঠক করেছে ৷ জরুরি ভিত্তিতে এই প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে ৷" তিনি জানান, ভারতের নিজস্ব ব্যাপারে এভাবে অনধিকারচর্চা গ্রহণযোগ্য নয় ৷

আরও পড়ুন: মণিপুর নিয়ে চুপ কেন মোদি, প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা কংগ্রেসের

অরিন্দম বাগচি আরও জানান, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ মণিপুর নিয়ে বিচারবিভাগীয় স্তর থেকে শুরু করে সমস্ত স্তরে পদক্ষেপ করছে ৷ আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে, শান্তি ও সম্প্রীতির পরিবেশ ফেরাতে সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে ৷ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, "মণিপুরের বিষয়ে মাথা না-গলিয়ে বরং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে আরও সময় দিক ৷ "

উল্লেখ্য, মেইতি ও কুকি জনজাতির মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরে দু'মাসেরও বেশি সময় ধরে অশান্ত মণিপুর ৷ মেইতি সম্প্রদায়ের মানুষ উপত্যকায় থাকে এবং কুকিরা মণিপুরের পাহাড়ি এলাকায় বসবাস করে ৷ মেইতিদের তফশিলি উপজাতিভুক্ত করার দাবিকে কেন্দ্র করেই দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে একের পর এক হিংসার ঘটনা ঘটে চলেছে ৷ এখনও পর্যন্ত 100 জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ৷

এর মধ্যে জুন মাসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সেখানে গিয়ে শান্তি স্থাপনের প্রয়াস করেন ৷ তারপরও হিংসা বন্ধ হয়নি ৷ ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন পার্লামেন্ট তাদের প্রস্তাবে অভিযোগ করেছে, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতি অসহনীয় আচরণই মণিপুরে এই হিংসাত্মক অবস্থা তৈরি করেছে ৷ এমনকী উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে প্রস্তাবে ৷ ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের কয়েকজন সদস্য দাবি তুলেছে, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ মণিপুরের হিংসার ঘটনায় নিরপেক্ষ তদন্ত করতে দিক ৷

আরও পড়ুন: হিংসা নিয়ে মণিপুর সরকারের কাছে সর্বশেষ স্ট্যাটাস রিপোর্ট চাইল সুপ্রিম কোর্ট

উল্লেখ্য, মণিপুর সরকারের লিখিত অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার তৃণমূলের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিম রাজ্যে যাচ্ছে না । তার বদলে বুধবার, 19 জুলাই রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ওব্রায়েনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তথ্য অনুসন্ধানকারী দল উত্তর-পূর্বের অশান্ত রাজ্যে যাবে ৷ এই প্রতিনিধি দলে থাকছেন- লোকসভায় দলের মুখ্য সচেতক কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, বিদায়ী রাজ্যসভা সাংসদ সুস্মিতা দেব, লোকসভার সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার এবং রাজ্যসভার সাংসদ দোলা সেন ৷

Last Updated :Jul 14, 2023, 8:55 AM IST
ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.