Cyber Crime: ফাঁদে পড়বেন না ! গৃহবধূরা সাইবার অপরাধীদের মূল টার্গেট, এভাবে সতর্ক থাকুন

author img

By ETV Bharat Bangla Team

Published : Oct 31, 2023, 7:34 PM IST

Cyber Crime

Housewives are targets of cybercriminals: গৃহবধূরা সাইবার অপরাধীদের মূল টার্গেট বলে দেখা গিয়েছে ৷ তাই সাইবার বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, ফাঁদে পড়বেন না ! বরং সতর্ক থাকুন ৷

হায়দরাবাদ, 31 অক্টোবর: 'ক্যাশ অন ডেলিভারি পার্সেল ম্যাডাম'৷ প্রশান্তির (নাম পরিবর্তিত) কাছে এসে বললেন ডেলিভারি বয় । কিন্তু প্রশান্তি বা তাঁর বাড়ির কেউই কোনও অর্ডার বুক করেননি ৷ তখন ডেলিভারি বয় বলেন, "হয়তো আপনার নামে অন্য কোনও অর্ডার চলে এসেছে । আমি একটা লিংক পাঠাচ্ছি, অর্ডারটা বাতিল করতে হবে ৷ আমাকে ওটিপিটা বলুন ৷" প্রশান্তি ভাবেন ওই ডেলিভারি বয় সমস্যায় পড়েছেন ৷ তাঁকে সাহায্য করতে চেয়ে ওটিপি দিয়ে দেন ডেলিভারি বয়কে ৷ কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই একটি মেসেজ পেয়ে তাঁর মাথায় বাজ ভেঙে পড়ে ৷ প্রশান্তি দেখেন যে, তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ অন্য অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার হয়ে গিয়েছে ৷

এ রকমই এক ঘটনার শিকার মাধবী ৷ তাঁর মোবাইলে একটি মেসেজ আসে ৷ তাতে লেখা ছিল, "আপনার বিদ্যুতের বিল এখনও মেটানো হয়নি । সন্ধ্যার মধ্যে তা না মেটালে পরিষেবা বন্ধ হয়ে যাবে ৷" বিল মেটানোর জন্য যে লিংক দেওয়া ছিল তাতে ক্লিক করে বিল মেটালেন মাধবী ৷ কিছুক্ষণ পর তিনি তাঁর পরিবারের একজনকে কিছু টাকা পাঠানোর চেষ্টা করেন...কিন্তু তিনি জানতে পারেন যে তাঁর অ্যাকাউন্ট খালি !

জনৈক জ্যোৎস্নার কাছেও একটি মেসেজ এসেছিল ৷ তাতে লেখা ছিল, "আমার বন্ধুকে যে টাকা পাঠানোর কথা ছিল, তা ভুল নম্বরের কারণে আপনার অ্যাকাউন্টে চলে গিয়েছে । দয়া করে আমার ফোন নম্বর পাঠান ।" তিনি তাঁকে সাহায্য করতে চেয়ে তাই করেন । কিছুক্ষণ পর জ্যোৎস্না বুঝতে পারেন যে তিনি কতবড় ভুল করেছেন ! তাঁর অ্যাকাউন্ট ততক্ষণে ফাঁকা ৷

এমন অনেক প্রতারণার শিকার হচ্ছেন গৃহবধূরা ! তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একটু সতর্ক থাকলে সহজেই এগুলো এড়ানো যায় ৷

কী করতে হবে ?

অনেক মহিলা প্রশ্ন করতে ভয় পান ৷ তাঁরা অজানা কোনও লিংকে যাবেন না । ব্যাংক হোক বা অনলাইন প্রতিষ্ঠান...যদি সন্দেহ হয়, তার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ব্যবহার করুন । তা না-হলে সরাসরি কাস্টমার কেয়ার নম্বরে ফোন করে জেনে নেওয়া ভালো ৷

আরও পড়ুন: 80 লক্ষ টাকা প্রতারণার দায়ে পুলিশের জালে ভুয়ো সিবিআই অফিসার

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার সময় দেওয়া ফোন নম্বরটি কি বর্তমানে ব্যবহৃত ফোন নম্বর ? অন্যথায়, অবিলম্বে তা আপডেট করুন । এমন অনেক ঘটনা আছে, যেখানে নগদ টাকার প্রয়োজনের কারণে অ্যাকাউন্ট না খুললে টাকা হারিয়ে যায় বা জানা যায় না । সুতরাং, আপডেট করার পরে লেনদেন বার্তা প্রদর্শিত হবে ৷

ব্যস্ত থাকা এবং সবকিছু ভুলে যাওয়া খুব সাধারণ ব্যাপার ৷ তবুও সবকিছুর জন্য একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করবেন না । ব্যাংক এবং ই-কমার্স অ্যাকাউন্টের জন্য এটি আলাদা রাখুন । মনে রাখা সহজ করার জন্য...যেমন 1234, আপনার নাম, জন্ম তারিখ ইত্যাদি চারটি অক্ষর রাখবেন না । মনে না থাকলে কোথাও লিখে রাখুন, তবে বড় পাসওয়ার্ড রাখুন ৷

কী ধরনের প্রতারণা

মহিলারা সাধারণত অফার এবং ডিসকাউন্টে আগ্রহী থাকেন । 'কিছু টাকা ফেরত পেতে বা কুপন জিততে কিউআর কোড স্ক্যান করুন । ইউপিআই পিন বলুন' - এই ধরনের মেসেজে অন্ধভাবে বিশ্বাস করবেন না । কুপনও আসবে না, আপনার টাকাও নষ্ট হয়ে যাবে ৷

আপনি কি মনে রাখার জন্য ব্যাংক লগইন বিশদ তথ্য সিস্টেম এবং ফোনে সংরক্ষণ করছেন ? এমনকি এটি আপনার নিজস্ব ডিভাইস হলেও সাইবারনেটে তা ধরা পড়ার ঝুঁকি রয়েছে ৷

আরও পড়ুন: মোবাইলে অ্যাপ ডাউনলোড করতেই ফাঁকা অ্যাকাউন্ট, সাইবার প্রতারণার শিকার মালদার যুবক

ব্যাংক বা ই-কমার্স কোম্পানি সংক্রান্ত কোনও সমস্যা থাকলে শুধু কাস্টমার কেয়ারে কল করুন । কেউ বলছে বলেই প্রতিটি অ্যাপ ইনস্টল করবেন না । কোনও লগইন তথ্য, পাসওয়ার্ড, ওটিপি, সিভিভি ইত্যাদি কারওকে বলবেন না ।

কোনও ভুল ছিল?

সাইবার অপরাধীদের বিষয়ে আপনি সম্পূর্ণভাবে প্রতারিত হওয়ার পরেই বিষয়টি জানতে পারবেন । আপনি যদি এ ভাবে কোনও ধরনের ক্ষেত্রে টাকা হারিয়ে থাকেন...অনুগ্রহ করে এটি করুন...

অবিলম্বে ব্যাংকের কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করুন এবং অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করুন । এছাড়াও, সাইবার ক্রাইম ইউনিটকে (1930) কল করুন এবং ওয়েবসাইটে বা সরাসরি থানায় অভিযোগ দায়ের করুন ৷ অনলাইন অ্যাকাউন্টের সমস্ত পিন এবং পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে হবে । এগুলি ভবিষ্যতে আর ব্যবহার করা উচিত নয় ৷ অবশেষে পুরো ফোনটি স্ক্যান করে নিন । কোনও নতুন ডাউনলোড বা অজানা অ্যাপ অবিলম্বে সরানো উচিত ।

ETV Bharat Logo

Copyright © 2024 Ushodaya Enterprises Pvt. Ltd., All Rights Reserved.